তাকদা হেরিটেজ বাংলো

দার্জিলিং থেকে মাত্র ২৮ কিমি দূরে, ১৯০০ শতকের গোড়ায় ব্রিটিশ কলোনির অন্যতম এক ঠিকানা ছিল তাকদা। ব্রিটিশ মিলিটারি ক্যান্টনমেন্ট তাকদায় গেলে এখনও দেখা মেলে ব্রিটিশদের করে যাওয়া কতগুলি সুদৃশ্য বাংলোর। অনেকেই আছেন যারা হেরিটেজ প্রপার্টিতে থাকতে চান। তাকদায় এমন কিছু বাংলো আছে যা ব্রিটিশ আমলে তৈরী। ব্রিটিশ সাহেবরা নিজেরা থাকবেন বলেই বানিয়েছিলেন। পরবর্তীতে তারা দেশ ছেড়ে চলে যাওয়ার পরও বাংলো গুলি রয়ে যায়। পরে তাকে রেনোভেট করে ট্রাভেলারদের থাকার ব্যাবস্থা করেন স্থানীয় মানুষরা। এমনই এক বাংলোর সন্ধান দেবো আজ – তাকদা হেরিটেজ বাংলো (Takdah Heritage Bunglow)। ব্রিটিশ বাংলোতে কাটাতে পারেন দুদিন। মনে হবে যেন টাইম মেশিনে চড়ে পৌঁছে গেছেন ইতিহাসের পাতায়। ফায়ারপ্লেস, বাথ টাব সমৃদ্ধ এই বাংলোটিতে চেষ্টা করা হয়েছে ইতিহাসের সঙ্গে আধুনিকতাকে মিশিয়ে এক স্বর্গীয় অনুভুতি গড়ে তোলার। অসাধারণ অভিজ্ঞতার সাক্ষী থাকবেন। তবে হোমস্টেতেই থাকুন আর বাংলো, সবুজে ঘেরা অপরূপ তাকদা আপনার মাস্ট ভিসিট লিস্টে থাকতেই হবে।

যাওয়ার উপায়

নিউ জলপাইগুড়ি থেকে তাকদার দূরত্ব ৬০ কিমি, যেতে সময় লাগে ৩ ঘন্টা। দার্জিলিং থেকে দূরত্ব ২৮ কিমি। সময় লাগে ঘন্টা দেড়েক। গাড়ী ভাড়া নিউ জলপাইগুড়ি থেকে ৩০০০-৩৫০০ মতো। দার্জিলিং থেকে ৩০০০ মতো।

থাকার খরচ

হেরিটেজ বাংলোতে থাকবার খরচঃ ডবল বেড রুম ২৫০০/- প্রতিদিন এবং ফোর বেড রুম ৩০০০/- প্রতিদিন। খাবার খরচ দৈনিক জনপ্রতি সমস্ত মিল আনুমানীক ৬০০/- টাকা।

×

করোনা (COVID-19) ভাইরাস থেকে সতর্ক থাকতে যা করনীয়ঃ

  • সবসময় হাত পরিষ্কার রাখুন। সাবান দিয়ে অন্তত পক্ষে ২০ সেকেন্ড যাবত হাত ধুতে হবে।
  • সাবান না থাকলে হেক্সিসল ব্যবহার করুন। হেক্সিসল না থাকলে হ্যান্ড সেনিটাইজার ব্যবহার করুন।
  • আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে দূরে থাকুন, যতটুকু সম্ভব ভীড় এড়িয়ে চলুন।
  • বাজারে কিছু স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন, করলে হাত সাবান দিয়ে ধুয়ে নিন।
  • টাকা গোনা ও লেনদেনের পর হাত সাবান দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।
  • ওভার ব্রিজ ও সিড়ির রেলিং ধরে ওঠা থেকে বিরত থাকুন।
  • পাবলিক প্লেসে দরজার হাতল, পানির কল স্পর্শ করতে টিস্যু ব্যবহার করুন।
  • হাত মেলানো, কোলাকুলি থেকে বিরত থাকুন।
  • নাক, মুখ ও চোখ চুলকানো থেকে বিরত থাকুন।
  • হাঁচি কাশির সময় কনুই ব্যবহার করুন।
  • আপনি যদি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত না হয়ে থাকেন তবে মাস্ক ব্যবহার আবশ্যক নয় তবে আক্রান্ত হলে সংক্রমণ না ছড়াতে নিজে মাস্ক ব্যবহার করুন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক থাকুন। Stay Home, Stay Safe.

হোটেলের সুবিধাসমূহ
  • সকালের নাস্তাঃ আছে
  • নিজস্ব রেস্টুরেন্টঃ আছে
  • গাড়ি পার্কিং: আছে
  • পিক এন্ড ড্রপঃ আছে
  • ওয়াইফাইঃ আছে
  • সার্বক্ষনিক বিদ্যুৎঃ সার্বক্ষনিক
রুমের ধরন

ডাবল

Room Picture
থাকতে পারবেঃ ২ জন
শীততাপ নিয়ন্তিতঃ না
ওয়াশরুমঃ এট্যাচড

৳ ২৫০০

ফোর বেড

Room Picture
থাকতে পারবেঃ ৪ জন
শীততাপ নিয়ন্তিতঃ না
ওয়াশরুমঃ এট্যাচড

৳ ৩০০০

দিক নির্দেশনা