টেমি টি গার্ডেন, নামচি

অফবিট পশ্চিম সিকিম ঘোরার প্ল্যান

সিকিম মানেই গ্যাংটক, গুরুদংমার, সিল্করুট আর পশ্চিম সিকিম মানেই পেলিং। যাবতীয় সিকিম ট্যুরিজম, পর্যটকদের আকর্ষণ ঐদিকেই কিন্তু নিরিবিলি, শান্ত, অফবিট সিকিম যারা ভালো বাসেন তাদের জন্য পশ্চিম সিকিমের রিনচেনপং, কালুক, ছায়াতাল, উত্তরে সার্কিট সেরা। গ্যাংটক, পেলিং এর মতো অতো ভিড়ভাট্টা নেই ঠিকই … বিস্তারিত

ভার্সে

ভার্সে

পশ্চিম সিকিম এর এই জায়গাটার নাম কেউ বলে বার্সে, আবার কেউ বলে ভার্সে। এই ভার্সে জায়গাটির পরিচিতি প্রধারণত ‘ভার্সে রডোডেনড্রন স্যাংচুয়ারি’ (Varsey Rhododendron Sanctuary) এর জন্য যা ১০৪ বর্গ কিমি জুড়ে বিস্তৃত। এই স্যাংচুয়ারিটি সিঙ্গালিলা জাতীয় উদ্যানের অন্তর্গত যার পশ্চিম প্রান্তে নেপাল সীমান্ত। বার্সে/ভার্সে আসলে সিঙ্গালিলা রিজের মধ্যে অবস্থিত, যা কি না ভারত আর নেপালের … বিস্তারিত

ওখড়ে, সিকিম

ওখড়ে

পশ্চিম সিকিম (West Sikkim) এর ছোট্ট একটা গ্রাম ওখড়ে। ওখড়ে (Okhrey) কে বার্সে এর গেটওয়েও বলা হয়ে থাকে। সিকিম রাজ্যটার প্রতিটা বাঁকেই প্রকৃতি বেশ সুন্দর সাজুগুজু করে থাকে। গুটিকতক ছড়ানো ছিটনো কাঠের বাড়ি নিয়ে তৈরি এই পুঁচকি গ্রামটিও এক অনন্য টুরিস্ট স্পট, যদিও এখন বেশ কিছু কংক্রিট এর বাসস্থান … বিস্তারিত

চটকপুর

চটকপুর

দার্জিলিং জেলার কার্শিয়াং মহকুমায় টাইগার হিলের পাশের পাহাড়টায় তন্দ্রাচ্ছন্ন শ্যামল গ্রামটার নাম চটকপুর। সিঞ্চল অভয়ারণ্যে ৭৭৮৮ ফুট উচ্চতায় চটকপুর (Chatakpur) এর অবস্থান। মাত্র ১৯ টি পরিবারের বাস এখানে – জনসংখ্যা ৯০ এর কাছাকাছি। ছোট্ট এই গ্রামটির চারপাশে যেদিকে তাকাবেন শুধু সবুজ আর সবুজ। মাথায় বরফের মুকুট – দিগন্ত … বিস্তারিত

গেজিং

গেজিং

৫৬০০ ফুট উচ্চতায় পশ্চিম সিকিম (Sikkim) এর ছোট্ট জেলা শহর গেজিং (Geyzing / Gyalshing)। যদি মেঘের উপত্যকা চোখের সামনে দেখতে দেখতে দুটো দিন পাহাড়ি নিস্তব্ধতায় কাটাতে মন চায় তাহলে যে কোন প্রকৃতিপ্রেমীর মন জয় করবে এই পাহাড়ি জনপদ। তিন কিলোমিটার উপরে পেলিং এর জনপ্রিয়তার পাশে গেজিং এখনও নিতান্তই অনাঘ্রাত। তবে প্রথমেই বলে … বিস্তারিত

সিটং

সিটং

পাহাড়ে ঘেরা, সবুজে ঢাকা সাজানো এক লেপচা জনপদ সিটং (Sittong)। কমলালেবুর উপত্যকায় আর এক নতুন ঠিকানা। কার্শিয়াং মহকুমার এই ছোট্ট এলাকাই এখন পর্যটন মানচিত্রের নতুন আকর্ষণ। রয়েছে সাধ্যের মধ্যে হোম স্টে পরিষেবাও। মিনিট দশেক নেমে গেলে পাবেন কমলালেবুর বাগান (শীতকালে)। আপনাকে স্বাগত জানাবে গাছে ঝুলে থাকা থোকা থোকা কমলালেবু। প্রথমদিন … বিস্তারিত

তাকদা, দার্জিলিং, ভারত

তাকদা

তাকদা দার্জিলিং এর মূল শহর থেকে কমবেশি ৩০ কিমি দূরে। এখান থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখা যায় না, কিন্তু দেখা যায় দিগন্ত বিস্তৃত ঘন সবুজের সমারোহ আর বিখ্যাত সমস্ত কোম্পানীর চা বাগান। উত্তরবঙ্গের গ্রামীণ পর্যটনের সেরা জায়গাগুলোর মধ্যে অন্যতম। অপূর্ব নৈসর্গিক শোভা তাকদার অন্যতম আকর্ষন। এইখানে পর্যটকদের থাকার জায়গাগুলো পাহাড়ের উপর দিকে আর যারা চা বাগানে … বিস্তারিত

জোংগু, সিকিম, ভারত

জোংগু

সিকিম এর রাজধানী গ্যাংটক থেকে ৭০ কিলোমিটার দূরে নর্থ সিকিম (North Sikkim) এ অবস্থিত জোংগু (Dzongu) নামের লেপচা অধ্যুষিত একটি গ্রাম যেখানে আজও বজায় রয়েছে লেপচা-সংস্কৃতির মূল নির্যাস। যাঁরা আসল সিকিমকে চিনতে চান, তাঁরাই খুঁজে পেতে কড়া নাড়েন জোংগুর লেপচা-বাড়ির দরজায়। নিজের মতো করে খুঁজে নেন কুমারী প্রকৃতিকে। সঙ্গে আপসে এসে ধরা দেয় সিকিমের মূল সংস্কৃতি। আসলে, … বিস্তারিত

রিনচেনপং, সিকিম, ভারত

রিনচেনপং

পাইন, ওক এবং দেওদারের ঘন সামিয়ানা। অনাবিল কাঞ্চনজঙ্ঘা। আর জানা-অজানা অসংখ্য রং বেরং এর পাখি।  ১৭০০ মিটার উচ্চতায় পশ্চিম সিকিম (West Sikkim) এর ছোট্ট গ্রাম রিনচেনপং (Rinchenpong) শিলিগুড়ি থেকে প্রায় ১২৫ কিমি দূরে অবস্থিত। পেলিং থেকে দূরত্ব ৪৫ কিমি। সুন্দরী সিকিম এর সবুজ নীল হিমালয় ঘেরা এই গ্রাম নির্জনে … বিস্তারিত

সাংসের, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত

সাংসের

সাংসের কালিম্পং এর ৩৯টি গ্রামের মধ্যে একটি এবং অত্যন্ত সুন্দর একটি গ্রাম যা ডেলো পাহাড় দ্বারা বেষ্টিত। সাংসেরে দ্রষ্টব্য স্থান খুব একটা নেই। থাকার মধ্যে আছে ‘জলসা’ বাংলো নামক একটি ব্রিটিশ বাংলো। কাছেপিঠে অন্যান্য গ্রামের মধ্যে আছে ইচ্ছেগাঁও, রামধুরা ইত্যাদি। দিনের আলোয় … বিস্তারিত

লেপচাজগত

লেপচাজগত

দার্জিলিং এর পাহাড়ঘেরা মিষ্টি গ্রাম লেপচাজগত। ব্রিটিশরা আসার পর পরিচিতি পেয়েছিল এই আদিবাসী গ্রাম এখন যা জনপ্রিয় ‘উইকেন্ড ডেস্টিনেশন’! মধুচন্দ্রিমার জন্যও আদর্শ জায়গা। ওক, পাইন, রডোডেনড্রনে মোড়া রাস্তার দু’ধার। ‘মেঘ এখানে গাভীর মতো চরে’— যা মাঝে মাঝেই ঢেকে দেয় কাঞ্চনজঙ্ঘাকে। আকাশের মুখ ভার না থাকলে অবশ্য কাঞ্চনজঙ্ঘা হতাশ করবে না আপনাকে। … বিস্তারিত