ফালুট

সান্দাকফু-ফালুট ট্রেকের সর্বশেষ গন্তব্য ফালুট (Phalut) যা সান্দাকফু থেকে ২৩ কিমি দূরে অবস্থিত। ফালুট টপের উচ্চতা ৩৬০০ মিটার বা ১১৭৯০ ফিট যা ভারতের পশ্চিমবঙ্গে দ্বিতীয়। হিমালয়ের অপরূপ শোভার জন্যই ফালুট এর খ্যাতি। মেঘ না থাকলে কাঞ্চনজঙ্ঘা আর এভারেস্ট দুই শৃঙ্গই এখান থেকে স্পষ্ট দেখা যায়। … বিস্তারিত

ফতেহপুর সিক্রি

ফতেহপুর সিক্রি

আগ্রা (Agra) থেকে ৩৬ কিলোমিটার দক্ষিণ পশ্চিমে অবস্থিত ফতেহপুর সিক্রি (Fatehpur Sikri) শহরটি ১৫৬৯ সালের সময়ে সম্রাট আকবরের আনুষ্ঠানিক রাজধানী ছিলো। তবে তা টিকেছিল মাত্র ১৪ বছর। বিশ্ব ইতিহাসের অন্যতম সাক্ষী হিসেবে ধরা হয় ফতেপুর সিক্রিকে। সারা বছর ভারতের বিভিন্ন স্থান থেকে হাজারো পর্যটক যেমন আসেন, তেমনি বিদেশি পর্যটকদের ভিড় লেগেই থাকে … বিস্তারিত

গুরদুম, দার্জিলিং

গুরদুম

গুরদুম (Gurdum) গ্রামটা সিঙ্গালিলা রেঞ্জের পাশেই যা সান্দাকফু-ফালুট ট্রেকের কারনে বেশ পরিচিত এবং জনপ্রিয়। সান্দাকফু থেকে নামার পথে গুরুদুম হয়ে অনেকে নেমে থাকেন। সান্দাকফু থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার দূরত্ব অতিক্রম করে শ্রীখোলা যাবার পথে পড়বে এই নয়নাভিরাম গ্রাম। মেঘের মধ্যে ভাসতে ভাসতে মনে হবে যেন স্বপ্নের মধ্যে … বিস্তারিত

বোরং, রাভাংলা, সিকিম

বোরং

সাউথ সিকিম এর রাবাংলা থেকে মাত্র ১৭ কিলোমিটার দূরের বোরং (Borong) গ্রামটি অফবীট লোকেশন হিসেবে প্রকৃতি প্রেমীদের কাছে আদর্শ একটি জায়গা। মধুচন্দ্রিমা কিংবা হানিমুনের জন্যও খুব রোমান্টিক জায়গা এটি। নির্জন আপন ভোলা একটি গ্রাম বোরং। হাঁটি হাঁটি পা পা করে গ্রামীণ প্রকৃতিকে দেখা ছাড়াও … বিস্তারিত

এলিফ্যান্টা কেভ, মুম্বাই

এলিফ্যান্টা কেভ, মুম্বাই

মুম্বাই এর ‘গেটওয়ে অফ ইন্ডিয়া’ থেকে দশ কিলোমিটার উত্তরপূর্বে আরব সাগরের মধ্যে ছোট্ট দ্বীপ এলিফ্যান্টা (Elephanta Island) এর অবস্থান৷ ১৯৮৭ সাল থেকে এই এলাকা ইউনেস্কোর হেরিটেজ সাইট। বর্তমানে এটি ভারতীয় পুরাতাত্বিক সংস্থার অধীন। প্রতি বছর এখানে কমবেশি ২০ লক্ষ পর্যটক আসেন। এই দ্বীপে রয়েছে সাতটি ছোট … বিস্তারিত

ইয়াকসাম, পশ্চিম সিকিম

ইয়াকসাম

৫,৮০০ ফুট উচ্চতায় অবস্থিত ইয়াকসাম (Yuksom) সিকিম এর প্রথম রাজা চোগিয়াল নামগিয়ালের রাজধানী ছিলো যা গ্যাংটক থেকে ১২০ কিমি দূরে ওয়েস্ট সিকিমে অবস্থিত হলেও পেলিং থেকে এর দূরত্ব মাত্র ৪০ কিমি। কাঞ্চনজঙ্ঘা ফলস থেকে ১৬কিমি এগুলে কারুকাজময় একটি সিকিমি তোরণ পেরিয়ে পৌঁছে যাওয়া … বিস্তারিত

সিগিরিয়া রক

সিগিরিয়া রক

শ্রীলংকার একটি অপূর্ব সুন্দর গুহামন্দির যার নাম সিগিরিয়া। ৬০০ ফুট উঁচু এক পাথর কেটে দুর্ভেদ্য প্রাসাদ বানিয়েছেন এক রাজা। প্রাসাদটি অনেকটা মৌমাছির চাকের মতো। এই পাথর সিগিরিয়া রক (Sigiriya Rock) নামে বিশ্ব বিখ্যাত। সিগিরিয়া রকের আরেক নাম লায়ন রক (Lion … বিস্তারিত

স্মরণিকা ট্রাম মিউজিয়াম

কলকাতাকে বর্ণনা করতে গেলে যে বিষয়গুলির নাম না উল্লেখ করলে সম্পূর্ণ হয় না তার মধ্যে তালিকার শীর্ষের দিকে স্হান পাবে ট্রাম। ইংরেজ আমল থেকে এই যানটি বাঙালির গতির সঙ্গে তাল মিলিয়েছে, নানা সময় বিভিন্ন কবি ও সাহিত্যিকদের কলমে বর্ণিত হয়েছে। একসময় এই যানটি মধ্যবিত্ত … বিস্তারিত

ইলম, নেপাল

ইলম

হিমাল কন্যা নেপাল এর এক বিস্ময়কর চা রাজ্য – ইলম। এখান থেকে ভারতের দার্জিলিং খুব বেশী দূরে নয়। ইলম হলো ভারত-নেপাল বর্ডারের সীমান্ত জেলা। গোটা জেলাটাই যেন জাপানি ফেরস্কো! প্রতিটা বাড়ি সাজানো। একচিলতে বারান্দায় কিছু না হলেও গাদা ফুলের গাছ। তবে টব নয়। … বিস্তারিত

ইটানগর

অরুণাচল প্রদেশের রাজধানী ইটানগর যা ভালুকপং থেকে ১৫০কিমি দূরে। নতুন আর পুরনো দুই শহর নিয়ে গড়ে উঠেছে ইটানগর। পুরনো শহর নাহারলাগুন (Naharlagun) ছবির মত সুন্দর। ছোট্ট এই শহরে রয়েছে দোকানপাট, বাজারহাট সবকিছুই। মূল ইটানগরের কাছেই রয়েছে এগারো শতকের ইটা দুর্গ এর ধ্বংসাবশেষ। ইটানগরে গেলে অব্যশই দেখতে হবে জওহর মিউজিয়াম। বিভিন্ন প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন ছাড়াও অরুণাচলের নানা … বিস্তারিত

পেলিং, সিকিম

পেলিং

ওয়েস্ট সিকিম এর খুব পরিচিত হিল স্টেশন পেলিং (Pelling) যা ৬৭০০ ফুট উচ্চতায় অবস্থিত যা কাঞ্চনজঙ্ঘার অপরূপ শোভা দেখার জন্য বিখ্যাত। মূলত তিনটি ভাগে পেলিংকে ভাগ করা হয়েছে – আপার, মিডল এবং লোয়ার পেলিং। অসাধারণ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ঘেরা পেলিং এর আশেপাশে ছড়িয়ে আছে বেশ কিছু দর্শনীয় স্থান। পাগল করা ঝর্ণা, নদী, কমলালেবুর বাগান, পাহাড়ঘেরা লেক, … বিস্তারিত

কল্পা, হিমাচল

কল্পা

কল্পা (Kalpa), হিমাচল প্রদেশের এক কল্পলোক এর নাম যেখানে প্রকৃতি তার আপন খেয়ালে ছবি এঁকেছে কল্পার ক্যানভাসে। পবিত্র কিন্নর-কৈলাস পর্বতমালার ঘেরাটোপে কল্পা এর অবস্থান। কল্পাকেই বলা হয় কিন্নরিদের দেশ। কিন্নর ভারত সীমান্তের শেষ ভূখণ্ড। কল্পার গোল্ডেন আপেলের খ্যাতি জগতব্যাপী। তবে অনুমতি ছাড়া আপেল গাছে … বিস্তারিত