নংরিয়াত – রেইনবো ফলস

নংরিয়াত, মেঘালয়

নংরিয়াত (Nongriat) হচ্ছে পাহাড়ের খাদে এমন একটি গ্রাম যেখানে পায়ে হাটা ছাড়া অন্য কোন ভাবে যাওয়া সম্ভব না। তৃর্না (Tyrna Village) থেকে ৩৭০০+ সিড়ি বেয়ে নেমে (মাঝে মাঝে উঠতেও হয় সিড়ি বেয়ে) যেতে হয় নংরিয়াতে। নংরিয়াত গ্রামে আছে ডাবল ডেকার রুট ব্রিজ, সিংগেল রুট ব্রিজ, ন্যাচারাল সুইমিং পুল, … বিস্তারিত

রোথাং পাস, মানালী, হিমাচল প্রদেশ

রোথাং পাস

সিমলা থেকে মানালী যাওয়া মানেই রোথাং পাস ট্রিপ যা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ১৩৫০০ ফুট (৪০০০ মিটার) উপরে অবস্থিত একটি রাস্তা, যেখানে স্বর্গ মনে হবে হাতের মুঠোয়। মানালী থেকে ৫০ কিমি দূরে কেইলং লেহ জাতীয় সড়ক পথে কোথি, গুলাবা ভ্যালি, মারহি হয়ে পৌঁছে যাওয়া যাবে রোথাং পাস। মে মাসের মাঝামাঝি থেকে … বিস্তারিত

হর কি দুন

হর কি দুন

ভারতের সবচেয়ে পুরোনো ট্রেকিং গুলির মধ্যে একটি হলো হর কি দুন ভ্যালি ট্রেক যা Valley of Gods নামেও পরিচিত। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৩৫৬৬ মিটার (১১৬০০ ফুট) উচ্চতাবিশিষ্ট এই ট্রেককিং রুটটি উত্তরাখণ্ডের উত্তরকাশি রাজ্যের গারোয়াল হিমালয়ের পশ্চিম পারে অবস্থিত। শীত এবং গ্রীষ্ম উভয় সিজনেই যাওয়া যায় এই রুটে। … বিস্তারিত

মনোলিথ, নার্টিয়াং, মেঘালয়

মনোলিথ পার্ক

শিলং এর আর এক আশ্চর্য হলো মনোলিথ। যার সাথে জড়িয়ে আছে স্থানীয় মানুষের ধর্মবিশ্বাস। শিলং এর এক বিশেষ উপজাতি তাদের সম্প্রদায়ের মানুষের মৃত্যুর পর সেই ব্যাক্তির উদ্দেশ্য একটি মনোলিথ তৈরি করে, পাথরের উপর পাথর বসিয়ে। এই পাথর ধীরে ধীরে আয়তনে বৃদ্ধি পায়। তাদের বিশ্বাস মনোলিথ বেড়ে যাওয়া মানে মৃত্যুর পরেও সেই ব্যাক্তির আত্মা … বিস্তারিত

হাফলং

হাফলং

আসাম এর উত্তর কাছাড় জেলার সদর শহর হাফলং৷ সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে হাফলং এর উচ্চতা ৬৮০ মিটার৷ হাফলং এসেছে ‘হাঁফলাঁও’ শব্দটি থেকে৷ দিমাশি ভাষায় হাঁফলাঁও কথার অর্থ উইয়ের ঢিপি৷ চমৎকার পাহাড়ি প্রকৃতি এখানকার প্রধান আকর্ষণ৷ পাইন আর নীল অর্কিডে ছেয়ে থাকে এই শৈলশহর৷ ফুলের শহর বলা হয় হাফলংকে৷ নানা ধরনের ফুল, বিরল শ্রেণির পাখি, নাশপাতি, আনারস, কমলালেবু … বিস্তারিত

কেউজিং

কেউজিং

দক্ষিণ সিকিমের রাভাংলা এর নাম শোনেনি এমন মানুষ আজকের দিনে পাওয়া বিরল। এখন আর রাবাংলাকে কোনমতেই সিকিমের অফবিট লোকেশন বলা যায় না। রাভাংলা থেকেই মাত্র ৭ কিমি দুরে অবস্থিত কেউজিং (Kewzing) এর পরিচয় করিয়ে দেবো হিমালয়ান ট্র্যাভেলরদের সাথে। অন্য আর পাঁচটা ছোট, নিরিবিলি, অপরিচিত পাহাড়ী জনপদের মতোই কেউজিং। তবে কেউজিংকে মনে রাখতে হবে একটি হোমস্টের … বিস্তারিত

চিন্তাফু টপ থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা

চিন্তাফু ট্রেক

চিন্তাফু ট্রেক (Chintaphu Trek) ভার্জিন রুট না হলেও খুব কম মানুষই এই পথে পা মিলিয়েছেন। চিন্তাফুর ব্যাপারে তাই খুব মানুষই জানেন। স্থানীয় গাইডরা চিন্তাফুকে সান্দাকফু এর বোন বলে। সান্দাকফুর থেকে চিন্তাফুর উচ্চতা মাত্র ৩৩মিটার কম। চিন্তাফুর উচ্চতা ৩৬৩৩মিটার অর্থাৎ ১১৯২৯ ফিট। চিন্তাফুর বৈশিষ্ট্য হল চিন্তাফু থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘাই শুধু নয়, অক্টোবরের ঝকঝকে আকাশে … বিস্তারিত

সাওদার্ন লাওস

সাওদার্ন লাওস

সাওদার্ন লাওস এবং নর্দান লাওস – এই দুটো ভাগে বিভক্ত লাওস দেশটি। অনেকেই মনে করেন, বোলাভেন প্ল্যাটু এবং Wat Phu World Heritage Area সাওদার্ন লাওসের শুধুমাত্র দেখবার জায়গা কিন্তু ভুল। যারা কম পয়সায় হাইকিং করতে চান, তাদের জন্যে Si Phan don (4000 … বিস্তারিত

বিচু, নর্থ সিকিম, ভারত

বিচু

বিচু (Bichu), উত্তর সিকিমের এক ছোট্ট অপূর্ব মনোরম গ্রাম যা ৮৬০০ ফিট উচ্চতায় অবস্থিত। বিচুতে মূলত লেপচা এবং ভুটিয়াদের বাস। গ্যাংটক থেকে বিচুর দুরত্ব ১১০ কিলোমিটার এবং নিউ জলপাইগুড়ি থেকে প্রায় ১৮৫ কিমি। চুংথাং থেকে লাচুং যাওয়ার পথে এই গ্রাম পর্যটকদের নজর কাড়বে। যদিও এই স্পট হিমালয়ান ট্রাভেলারদের কাছে বেশি … বিস্তারিত

পুন হিল ট্রেক

পুন হিল ট্রেক

পুন হিল গোরেপানির কাছেই অবস্থিত একটি পাহারচূড়া, যেটির উচ্চতা ৩২১০ মিটার। নেপালের হিমালয়ের অন্নপূর্ণা রেঞ্জের অসাধারণ সৌন্দর্য উপভোগ করতে হলে পুন হিল ট্রেক (Pun Hill Trek) এর জুড়ি নেই। আকাশ পরিস্কার থাকলে পুন হিল থেকে অন্নপূর্ণা এবং ধবলগীরি রেঞ্জের ১২টি চূড়া দেখা যায়। … বিস্তারিত

ফালুট

সান্দাকফু-ফালুট ট্রেকের সর্বশেষ গন্তব্য ফালুট (Phalut) যা সান্দাকফু থেকে ২৩ কিমি দূরে অবস্থিত। ফালুট টপের উচ্চতা ৩৬০০ মিটার বা ১১৭৯০ ফিট যা ভারতের পশ্চিমবঙ্গে দ্বিতীয়। হিমালয়ের অপরূপ শোভার জন্যই ফালুট এর খ্যাতি। মেঘ না থাকলে কাঞ্চনজঙ্ঘা আর এভারেস্ট দুই শৃঙ্গই এখান থেকে স্পষ্ট দেখা যায়। এখান থেকে সূর্যোদয় এবং … বিস্তারিত

ফতেহপুর সিক্রি

ফতেহপুর সিক্রি

ফতেহপুর সিক্রি (Fatehpur Sikri) শহরটি আগ্রা (Agra) থেকে ৩৬ কিলোমিটার দক্ষিণ পশ্চিমে অবস্থিত যা ১৫৬৯ সালের সময়ে সম্রাট আকবরের আনুষ্ঠানিক রাজধানী ছিলো। তবে তা টিকেছিল মাত্র ১৪ বছর। বিশ্ব ইতিহাসের অন্যতম সাক্ষী হিসেবে ধরা হয় ফতেপুর সিক্রিকে। সারা বছর ভারতের বিভিন্ন স্থান থেকে হাজারো পর্যটক যেমন আসেন, তেমনি বিদেশি পর্যটকদের … বিস্তারিত