ফাইপি ঝর্ণা, বান্দরবান

ফাইপি ঝর্ণা

ফাইপি ঝর্ণা (Faipi Waterfall) বাংলাদেশের বান্দরবান জেলার থাইকং পাড়ায় অবস্থিত একটি অনিন্দ্য সুন্দর বুনো ঝর্ণা। ব্যোম ভাষায় ফাইপি শব্দের অর্থ হাতির বাঁধা। এর মানে হলো যে রাস্তায় হাতি চলতে পারে না সেই রাস্তায় অবস্থিত ঝর্ণা। থাইকং পাড়ার উত্তরের দিকে রয়েছে কেওক্রাডাং, পূর্বে … বিস্তারিত

সাইংপ্রা ঝর্ণা, আলীকদম, বান্দরবান

সাইংপ্রা ঝর্ণা

সাইংপ্রা ঝর্ণা (Saingpra Jhorna) বান্দরবান জেলার আলীকদম উপজেলার অন্তর্গত চিম্বুক রেঞ্জের কির্সতং পাহাড়ের কাছে অবস্থিত একটি বুনো ঝর্ণা। এককথায় বলতে গেলে বাংলাদেশের সবচেয়ে বুনো ঝর্ণাগুলোর মধ্যে একটি। অফ রুটের এই ঝর্ণার সর্বমোট ৪-৫ টি ধাপ রয়েছে। কির্সতং-রুংরাং সামিটের সময় আপনার ট্যুর প্ল্যানে সাইংপ্রা ঝর্ণা যুক্ত করে নিতে পারেন অনায়াসে। সম্পূর্ণ বুনো ট্রেইলে পাহাড়কে অনুভব করতে … বিস্তারিত

থানকোয়াইন ঝর্ণা

থানকোয়াইন ঝর্ণা

থানকোয়াইন ঝর্ণা (Thaan Kowain Waterfall) বাংলাদেশের বান্দরবান জেলার সুন্দরের আধার আলীকদম উপজেলায় অবস্থিত একটি নয়নাভিরাম ঝর্ণা। থানকোয়াইন ঝিরি থেকে এই ঝর্ণার উৎপত্তি। এই ঝর্নায় যাওয়ার ট্রেকিং পথের চারিদিকে সুউচ্চ সবুজ পাহাড় এবং এই পাহাড়ের বুক চিড়ে বয়ে চলা টোয়াইন খালের পাশ ঘেঁষে পথ চলতে হবে অধিকাংশ সময়। আলীকদমের পানবাজার থেকে বাজার করে চলে যেতে হবে … বিস্তারিত

বরইতলী ট্রেইল

বরইতলী ট্রেইল

বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের বরইতলী-মংজয় পাড়া গ্রাম থেকে প্রায় ৫ কিলোমিটার পূর্বে তিনটি প্রকৃতিক ঝর্ণার সন্ধান মিলেছে। এই ট্রেইলটিকে বরইতলী ট্রেইল (Boroitoli Trail) বলা হয় যা অনেকের কাছে  বরইতলী ফাত্রাঝিরি ঝর্ণা নামেও পরিচিত। বরইতলী, মংজয় পাড়া গ্রামের পূর্বপ্রান্তে রয়েছে … বিস্তারিত

কির্সতং, আলীকদম, বান্দরবান

কির্সতং

কির্সতং (Kirs Taung) এর অবস্থান চিম্বুক রেঞ্জে যার উচ্চতা আনুমানিক ২৯৮৯ ফুট। কির্সতং নামটি আদতে মারমা শব্দ যা এসেছে ‘কির্স’ ও ‘তং’ এর যৌথ মিলন থেকে। কির্স একটি বিলুপ্ত প্রায় পাখির নাম। এই পাখিগুলো কির্সতং এর চূড়াতেই দেখা যায়। আর ‘তং’ অর্থ … বিস্তারিত

তুইনুম ঝর্ণা

তুইনুম ঝর্ণা

তুইনুম ঝর্ণাটির (Tuinum Jhorna) অবস্থান বান্দরবানের আলীকদম উপজেলার ৪ নং কুরুকপাতা ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডে অবস্থিত তুইনুম ঝিরিতে। এলাকাটিতে ম্রো সম্প্রদায়ের বাস। তাদের ভাষায় ” তুইনুম অ”। ম্রো ভাষায় ” তুই ” অর্থ পানি, “নুম” অর্থ কালো আর “অ” অর্থ ঝিরি। তার মানে “তুইনুম অ” এর অর্থ … বিস্তারিত

জিংসিয়াম সাইতার

জিংসিয়াম সাইতার

জিংসিয়াম সাইতার (Zingsiam Saitar) ঝর্ণাটি বান্দরবানের রুমা থানার রুমানা পাড়ার পাশে অবস্থিত। এই নামটার সঙ্গে একটা করুণ কাহিনী জড়িয়ে আছে। জিংসিয়াম একটা বম মেয়ের নাম। রুমানা পাড়ায়ই থাকত। খুব চঞ্চল ছিল। একদিন জুমে গিয়েছিল শাকসবজি আনার জন্য। ফিরে আসার কথা দুপুরের আগেই। কিন্তু বিকেলও গড়িয়ে … বিস্তারিত

তাজিংডং, বান্দরবান

তাজিংডং

তাজিংডং (Tazing Dong), বাংলাদেশের একটি পর্বতশৃঙ্গ যা বান্দরবানের রুমা উপজেলার রেমাক্রী পাংশা ইউনিয়নে সাইচল পর্বতসারিতে অবস্থিত। সরকারিভাবে এটি বাংলাদেশের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ এবং এর উচ্চতা ১,২৮০ মিটার (৪১৯৮.৪ ফুট)। পূর্বে কেওক্রাডংকে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ মনে করা হত, আধুনিক গবেষণায় এই তথ্য ভুল প্রমাণিত হয়েছে। বর্তমানে বেসরকারী গবেষণায় সাকা হাফং পর্বতকে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ দাবী করা … বিস্তারিত

ওয়াং-পা ঝর্ণা

ওয়াং-পা ঝর্ণা

ওয়াং-পা ঝর্ণা (Wang Pa Waterfall) বান্দরবানের গহীনে অবস্থিত একটি পাগল করা ঝর্ণা যা এখনও লোক চক্ষুর আঁড়ালেই রয়ে গেছে। লোক চক্ষুর আঁড়ালে বলার কারন হল যত মানুষ দামতুয়া ঝর্না দেখেছে, তার চেয়ে অনেক কম মানুষ এই ওয়াং-পা ঝর্ণায় গিয়েছে বা এর সম্বন্ধে জেনেছে। … বিস্তারিত

লাংলোক ঝর্না

লাংলোক ঝর্ণা

লাংলোক ঝর্ণা (Langlok Jhorna) বান্দরবানের গহীনে অবস্থিত একটি ঝর্ণা যা কিছুদিন আগে লোকচক্ষুর সামনে এসেছে। লাংলোক এর উচ্চতা ৩৮৮.৯ ফুট। মুলত গভীর জঙ্গল, দূর্গম পথ আর লোকালয়ের বেশ বাইরে থাকার কারনে খুব কম মানুষের চোখে পড়েছে। চারিদিক ঘন জঙ্গলে ঘেরা উচুঁ নিচু আঁকা বাঁকা পথ ও বিল্ডিং সমান পিচ্ছল পাথর পেরিয়ে … বিস্তারিত

শীলবান্ধা

শীলবান্ধা ঝর্ণা

শীলবান্ধা ঝর্ণা (Shilabandha Jhorna), বান্দরবান এর রোয়াংছড়ি উপজেলার কচ্ছপতলী ইউনিয়নে অবস্থিত। নাফাখুম ও রেমাক্রীর চেয়ে দূরত্বও কম। অল্প সময়ে সহজে যাওয়া যায় এ পর্যটন স্পটে। দূরত্ব কম ও যাতায়াত ব্যবস্থা সহজ হওয়ায় প্রতিনিয়ত পর্যটকরা ছুটে যাচ্ছেন শীলবান্ধা ঝর্ণা ও দেবতাখুম এর সৌন্দর্য্য দেখতে। অবস্থানঃ … বিস্তারিত

লিপ অ রা/লিক্ষ্যং/লিখ্যিয়াং ঝর্ণা

লিখ্যিয়াং ঝর্ণা

বান্দরবানের সবচেয়ে অপরিচিত ট্রেইল এবং অদেখা সৌন্দর্য্যে মধ্যে লিখ্যিয়াং ঝর্ণা (Likkhyang Waterfall) অন্যতম। রেমাক্রির নিকটবর্তী হওয়ার পরও তুলনামূলক অপরিচিত এবং বুনো সৌন্দর্য্যে ভরপুর এই ট্রেইলে খুব কম মানুষেরই পদচারণা পড়েছে এখন পর্যন্ত। রেমাক্রি থেকে দূরের ছোট মদক ঘাটের আগে, একটি গ্রামে এই ঝর্ণার অবস্থান। লিখ্যিয়াং বাংলাদেশের সবচেয়ে উঁচু ঝর্ণার তালিকায় ৪র্থ স্থান পেয়েছে। … বিস্তারিত