পালং খিয়াং ঝর্ণা

পালং খিয়াং ঝর্ণা

বান্দরবন জেলার আলীকদম উপজেলায় পালং খিয়াং ঝর্ণাটি অবস্থিত। তবে দুর্গমতার কারণে খুব বেশী পর্যটক সেখানে পৌঁছাতে পারে নি। তৈনখালের পাথুরে রাস্তা দিয়ে, কখনো-বা উঁচু পাহাড় ডিঙ্গিয়ে পালং খিয়াং ঝর্ণায় যেতে হয়। তবে ঝর্ণায় যাওয়ার পথে তৈনখালের যে নৈসর্গিক রূপ তাও … বিস্তারিত

দেবতাখুম

দেবতাখুম

নৈসর্গীক বান্দরবানকে বলা হয় খুমের স্বর্গরাজ্য আর এই রাজ্যের শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট নিঃসন্দেহে দেবতাখুম (Debotakhum) এর কাছেই যাবে। স্থানীয়দের মতে প্রায় ৫০-৭০ ফুট গভীর এই খুমের দৈর্ঘ্য ৬০০ ফুট যা ভেলাখুম থেকে অনেক বড় এবং অনেক বেশী বন্য। দেবতাখুম যেতে হলে আপনাকে প্রথমে রোয়াংছড়ি থেকে কচ্ছপতলী আর্মি ক্যাম্প যেয়ে অনুমতি নিয়ে ট্রেক করে শীলবাঁধা … বিস্তারিত

সাইরু হিল রিসোর্ট

সাইরু হিল রিসোর্ট

সৌন্দর্যের দিক থেকে প্রথম সারিতে থাকা একটি অনিন্দ্য সুন্দর আর মনোরম রিসোর্ট – সাইরু হিল রিসোর্ট। বান্দরবান শহর হতে প্রায় ২০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এটি। সাইরু রিসোর্ট সম্ভবত বান্দরবানের সবচেয়ে এক্সপেন্সিভ রিসোর্ট। তবে অসম্ভব রকম সুন্দর একটা জায়গা সাইরু। এটি দেখে মনপ্রাণ জুড়োবে বেরসিক মানুষেরও। পাহাড়, … বিস্তারিত

লামা, বান্দরবান

লামা

বান্দরবান জেলার লামা সবার কাছেই যেন একটা স্বর্গ রাজ্য। ১১টি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর বসবাস স্থল লামা যে কোন ভ্রমণ পিপাসু মানুষের মন কাঁড়বে। এখানে দেখে মুগ্ধ হবার মত আছে অনেক কিছুই। চকরিয়া থেকে লামা যাওয়ার রাস্তা হলো এর শুরুর আকর্ষন। লামার রাস্তায় প্রবেশ করার সাথে সাথে পেয়ে যাবেন স্বর্গে প্রবেশের মতো একটা আমেজ। এছাড়া আছে কোয়ান্টাম … বিস্তারিত

প্রান্তিক লেক, বান্দরবান

প্রান্তিক লেক

প্রায় ২৫ একর জায়গা জুড়ে সৃষ্ট কৃত্রিম জলাশয় প্রান্তিক লেক। প্রান্তিক লেক এর আয়তন ২৫ একর হলেও পুরো কমপ্লেক্সটি আরো অনেক বড়। ৬৮ একর এলাকা জুড়ে পাহাড় বেষ্টিত ২৫ একরের বিশাল লেক যা বগা লেক এর থেকেও বড়। জেলার এক প্রান্তে অবস্থিত বলে এই … বিস্তারিত

মারায়ন ডং

মারায়ন ডং

বান্দরবানের আলিকদমে অবস্থিত মিরিঞ্জা রেঞ্জের একটি পাহাড় মারায়ন ডং তবে স্থানীয়রা মারায়ন তং নামেও ডেকে থাকে। উচ্চতা প্রায় ১৬৪০ ফিট। পাহাড়ের একেবারে চূড়ায় রয়েছে এক বৌদ্ধ উপাসনালয়। চারদিকে খোলা ও ওপরের দিকে চালা। এতে আছে বুদ্ধের এক বিশাল মূর্তি। দর্শনীয় স্থান হিসেবেও জায়গাটা চমৎকার। ওপরের অংশটুকু সমতল। এখান থেকে যত দূর দৃষ্টি … বিস্তারিত

কংদুক বা যোগী হাফং, বান্দরবান

কংদুক বা যোগী হাফং

ঠিক বান্দরবান-মিয়ানমার বর্ডার এ কংদুক বা যোগীহাফং এর অবস্থান। পাহাড় প্রেমীদের কাছে যোগী হাফং পরিচিত একটি নাম। যোগী হাফং বা কংদুক ৪র্থ সর্ব্বোচ্চ পাহাড়। কংদুক বা যোগীহাফং এর উচ্চতা ৯৮৩ মিটার বা ৩২২২ ফুট। বাংলাদেশ-মায়ানমার সীমান্তে বেশ দুর্গম অঞ্চলে অবস্থিত মোদক রেঞ্জের অন্তর্ভুক্ত এই পাহাড়টি। বাংলাদেশের মধ্যে মোদক রেঞ্জের পাহাড়গুলোর উচ্চতাই সবচেয়ে বেশি। এই রেঞ্জের পাহাড় … বিস্তারিত

বাকলাই ঝর্ণা

বাকলাই ঝর্ণা

কেওক্রাডং থেকে তাজিংডং এর পথে সবচেয়ে পরিচিত গ্রাম বাকলাই। বহু বছর ধরে ট্রেকারদের সুপরিচিত আশ্রয়/ক্যাম্পিং এই বাকলাই। এর সবচেয়ে বড় কারণ এখানে আছে আর্মি ক্যাম্প যা অভিযাত্রীদের বাড়তি নিরাপত্তা নিশ্চিত করে। আর বান্দরবন জেলার থানচি উপজেলার নাইটিং মৌজার বাকলাই গ্রামেই নয়নাভিরাম এবং অনিন্দ সুন্দর এই বাকলাই ঝর্ণা … বিস্তারিত

আন্ধারমানিক

আন্ধারমানিক

আন্ধারমানিক শব্দটিই রহস্যময়। এই নৈসর্গিক সৌন্দর্যময় স্থানটি নিজের চোখে দেখলে অনুভব করতে পারবেন এর বিশালতা। এর অবস্থান বান্দরবান জেলার থানছি উপজেলার বড় মদক এর পরে। বড় মদকের পর আর কোনো সেনা বাহিনী বা বিজিবি ক্যাম্প না থাকায় নিরাপত্তার কারণে প্রায়ই এখানে যেতে অনুমতি … বিস্তারিত

তুক অ / লামোনই ঝর্ণা

তুক অ / লামোনই / ডামতুয়া ঝর্ণা

তুক অ / লামোনই / ডামতুয়া ঝর্ণাটি (Damtua Waterfall) পার্বত্য বান্দরবান জেলার আলীকদম এ অবস্থিত। আর ঝর্ণার নাম সাধারনত বেশীর ভাগই ঝিরির নাম অনুসারে হয়। ঝর্ণাটি যে ঝিরিতে তার নাম ব্যাঙ ঝিরি। যেহেতু মুরং এলাকায় অবস্থান তাই তাদের ভাষায় ব্যাঙ কে ” তুক” বলে আর ঝিরিকে “অ ” বলে। ডামতুয়া অর্থ হলো এর খাড়া … বিস্তারিত

ডিম পাহাড়, আলীকদম, বান্দরবান

ডিম পাহাড়

দেশের ভ্রমণ পিপাসু মানুষদের কাছে বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় দেশের উচু সড়ক বান্দরবানের থানচি-আলীকদমের ডিম পাহাড়। প্রকৃতির অনাবিল সৌর্ন্দয আর বৈচিত্র্যময় জীবনধারা নিয়ে বান্দরবানের থানচি-আলীকদম ডিম পাহাড়। ডিম পাহাড়ের অবস্থান আলীকদম এবং থানচি থানার ঠিক মাঝখানে। এই পাহাড় দিয়েই দুই থানার সীমানা নির্ধারিত হয়েছে। … বিস্তারিত

Tlabong Jhorna (ত্লাবং ঝর্ণা / ডাবল ফলস)

ত্লাবং ঝর্ণা / ডাবল ফলস

ত্লাবং ঝর্ণা বা ডাবল ফলস বান্দরবন জেলার অন্যতম আকর্ষনীয় জলপ্রপাত যা দ্বৈত ঝর্ণা কিংবা জোড়া ঝর্ণা বা ক্লিবুং খাম নামেও পরিচিত। এটি রিমাক্রি খালের আদ্যস্থল। দুটি প্রবাহ প্রানশা বা প্রাংশা (বামে) ও পাঙ্খিয়াং বা পাংখিয়াং (ডানে) ঝিরি মিলে দুটি আকর্ষনীয় জলপ্রপাত তৈরী হয়েছে। ২টা ঝর্ণা একসাথে থাকার কারণের একে ডাবল ফলস (Double Falls) বলা হয়। এটি … বিস্তারিত