নিকলী হাওর

নিকলী হাওর

হাতে একদিন সময় নিয়ে ঢাকা থেকে খুব অল্প বাজেটের মাঝেই ঘুরে আসুন কিশোরগঞ্জ জেলার নিকলী হাওর থেকে। হাওড়ের দ্বিগন্ত বিস্তৃত স্বচ্ছ জলরাশির বুকে নৌকায় ঘুরে বেড়ানো, পানির মাঝে জেগে থাকা দ্বীপের মত গ্রাম, রাতারগুলের মত ছোট জলাবন, হাওড়ের তাজা মাছ ভোজন। সব মিলিয়ে একদিনের ট্যুরের জন্য আদর্শ একটি জায়গা। জনপ্রিয় ট্যুরিস্ট প্লেসগুলোতে মানুষের ভিড়ে যখন … বিস্তারিত

ডানা পার্ক

ডানা পার্ক

নওগাঁ পৌরসভা এলাকার ভবানীপুর গ্রামে প্রায় ১০ বিঘা জমিতে ডানা পার্ক বিনোদন কেন্দ্র নির্মাণ করা হয়েছে। গ্রামের মধ্যে গড়ে তোলা নিরিবিলি পরিবেশে পার্কটি এখন বিনোদন প্রেমীদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। পার্কটিতে রয়েছে – দুইটি সুইমিং পুল, কমিউনিটি সেন্টার, পিকনিক কর্নার ও পিকনিকের ব্যবস্থা। বাচ্চাদের খেলার জন্য দোলনা, পিচ্ছিল, মইসহ বিভিন্ন রাইডস। আছে … বিস্তারিত

সাবাহ গার্ডেন রিসোর্ট

সাবাহ গার্ডেন রিসোর্ট

ঢাকার অদূরে গাজীপুর এর বাঘের বাজার এলাকায় সাবাহ গার্ডেন রিসোর্ট অবস্থিত। ৩৬ বিঘা জমির ওপর নির্মিত হয়েছে রিসোর্টটি। কর্মব্যস্ত মানুষ নাগরিক জীবনে হাপিয়ে উঠে খোঁজেন প্রশান্তির ছোঁয়া। তাই একটু অবসরে দ্রুত প্রকৃতির সান্নিধ্য পেলে মন্দ হয় না। তাদের জন্য ঢাকার অদূরে গাজীপুরের প্রত্যন্ত এলাকায় মনোরম … বিস্তারিত

লেমন গার্ডেন রিসোর্ট

লেমন গার্ডেন রিসোর্ট

হামিমুনের জন্য শ্রীমঙ্গলের লাউয়াছড়া লেমন গার্ডেন রির্সোটটি মনোমুগ্ধকর। পরিবারের সদস্যদের নিয়েও এ পাহাড়ের টিলায় বাগিচা ঘেরা লেমন গার্ডেন রির্সোটটিতে ২/৩ দিন অনায়াসেই রাত্রিযাপন করা যায়। শ্রীমঙ্গলের লেমন গার্ডেন রির্সোটটি সত্যিই অতুলনীয়। নির্জনতা যারা পছন্দ করেন, তাদের জন্য এই রির্সোটটি স্বর্গরাজ্য। লেমন গার্ডেন … বিস্তারিত

হাতিমুড়া

হাতি মাথা / হাতিমুড়া

খাগড়াছড়ি জেলার উপজেলা সদরের পেরাছড়া ইউনিয়নের মায়ুং কপাল / হাতি মুড়া হচ্ছে একটি পাহাড়ি উঁচু পথ। স্থানীয় অনেকেই আবার একে হাতি মাথা ডাকে। চাকমা ভাষায় যার নাম – এদো সিরে মোন। অনেকে একে স্বর্গের সিড়ি ও বলে থাকেন। খাড়া পাহাড় ডিঙ্গিয়ে দুর্গম এই পথে যাতায়াত করে ১৫টি গ্রামের মানুষ। সদর উপজেলা ও মাটিরাঙ্গা … বিস্তারিত

নকশিপল্লী, পূর্বাচল

নকশিপল্লী, পূর্বাচল

যারা ঢাকার মধ্যেই যানজট থেকে দূরে গিয়ে একটু শান্তির আভাস পেতে চান তাদের জন্য একটা ভাল জায়গা হতে পারে পূর্বাচলের বালু ব্রিজের পাশের এই সুন্দর এলাকা। এখানে মোটামুটি অনেক খাওয়ার হোটেল, রেস্তোরা আছে কিন্তু একটু ভিন্ন ধাচের একটা রেস্তোরা হল নকশিপল্লী (Nokshi Polli)। আপনি এখানে নদীর পাশে বসে কিছুটা সুন্দর সময় কাটাতে … বিস্তারিত

হরিনঘাটা পর্যটন কেন্দ্র

হরিনঘাটা পর্যটন কেন্দ্র

বরগুনা জেলার পাথরঘাটা উপজেলার দক্ষিণে হরিনঘাটা পর্যটন কেন্দ্র যা সুন্দরবনের অংশ। হরিন, বানর,পাখির,আর সবুজ পাতার সানাইয়ে সারাক্ষণ মুখর থাকে হরিনঘাটা বনাঞ্চল। এ বনে কোন বাঘ নেই। বঙ্গোপসাগরের মোহনায়,পায়রা, বিষখালি, বলেশ্বর – এই তিন নদীর সঙ্গমস্থলে অবস্থিত এই বনাঞ্চল। নতুন ভাবে যোগ হয়েছে নদীর ধারের ঝাউবন। কাছাকাছি আছে ফাতরার চর ও পদ্দার পার। চাইলে ট্রলার ভারা করে … বিস্তারিত

কাইকারটেক হাট

কাইকারটেক হাট

সপ্তাহে প্রতি রবিবার এই হাটটি বসে বিধায় এই হাটকে রবিবারের হাটও বলা হয়ে থাকে। প্রায় ১০০ বছর ধরে নারায়ণগঞ্জের গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যকে ধারন করে আসছে এই কাইকারটেক হাট। এই হাটের দেখা মিলবে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের কাইকারটেক এলাকায়। ব্রহ্মপুত্র নদের তীর ঘেষে মনোরম পরিবেশ আর প্রাচীন … বিস্তারিত

পাকশী হার্ডিঞ্জ ব্রীজ

পাকশী হার্ডিঞ্জ ব্রীজ

পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার পাকশী ও কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার মাঝ পদ্মা নদীর উপর নির্মিত ব্রিজটির নাম পাকশী হার্ডিঞ্জ ব্রীজ। তৎকালীন ভাইসরয় লর্ড হার্ডিঞ্জ ৪ মার্চ ১৯১৫ সালে এটি উদ্বোধন করেন। তার নামনুসারে ব্রিজটির নামকরণ করা হয় হার্ডিঞ্জ ব্রিজ। ব্রিটিশ সরকার ভারত উপমহাদেশের রেল যোগাযোগের ব্যাপকতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ১২৬ বছর আগে ১৮৮৯ সালে পদ্মা নদীর ওপর রেল … বিস্তারিত

পাকশী রিসোর্ট

পাকশী রিসোর্ট

পাকশী রিসোর্ট পাবনা জেলার ঈশ্বরদী উপজেলায় পদ্মা নদীর পাশে অবস্থিত। ঢাকা থেকে মাত্র কয়েক ঘণ্টার পথ। যমুনা সেতু থেকে এক ঘণ্টার রাস্তা। এ রিসোর্টে পর্যটকদের জন্য রয়েছে তিনতলা বিশিষ্ট দুটি ভবন। বিদেশি স্থাপত্য কাঠামোয় গড়ে ওঠা এ রিসোর্ট এ গেলে মনে হবে উন্নত বিশ্বের কোনো মনোমুগ্ধকর রিসোর্টে … বিস্তারিত

চাটমোহর শাহী মসজিদ

চাটমোহর শাহী মসজিদ

চাটমোহর মসজিদ বাংলাদেশের একটি সুপ্রাচীন মসজিদ। পাবনা জেলার চাটমোহর উপজেলা হতে এটি প্রায় ২০০ গজ দূরে অবস্থিত। পূর্বে চাটমোহর ছিল পাবনার একটি অন্যতম বাণিজ্যকেন্দ্র। তখনকার সময়ে এখানে মোঘল ও পাঠানদের অবাধ বিচরণ ছিল। ১৫৮১ খ্রিষ্টাব্দে সম্রাট আকবরের সেনাপতি মাসুম খাঁ কাবলি এখানে একটি মসজিদ নির্মাণ করেন। এটিই আজকের চাটমোহর শাহী মসজিদ। তবে … বিস্তারিত

বিউটি বোর্ডিং

বিউটি বোর্ডিং

কবি-সাহিত্যিকদের কাছে পুরনো ঢাকার বিউটি বোর্ডিং এক আড্ডার কেন্দ্রস্থল। বাংলাবাজারে বইয়ের মার্কেট পেরিয়ে শ্রীশচন্দ্র দাস লেনে ঢুকতেই চোখে পড়ে একটি জমিদার বাড়ি। এটির কোল ঘেঁষেই দোতলা একটি বাড়ি। ছোট লোহার গেট পেরোলেই ফুলের বাগান। বাগানের মাঝখানে দুর্বা ঘাসে মোড়ানো ফাঁকা জায়গা – আড্ডাস্থল। পাশেই অতিথিদের খাবারের ব্যবস্থা। হলদে-কালচে রঙের বাড়িটির এক কোনায় … বিস্তারিত