হর্ণবিল উৎসব

ইভেন্টের তারিখঃ মঙ্গলবার, ১ ডিসেম্বর ২০২০
কিসামা গ্রাম, কোহিমা, নাগাল্যান্ড, ভারত

নাগাল্যান্ড রাজ্যে নাগা উপজাতির অন্তত ১৬ প্রধান সম্প্রদায় বসবাস করে —আঙ্গামি, আও, চাকেসাং, কোনিয়াক, কুকি, কাচারি, সুমি, চাং, লোথা, প্রচুরি, তাংগুল প্রভৃতি। এই প্রতিটি উপজাতির নিজের নিজের উত্সব রয়েছে। এই উপজাতি গোষ্ঠীগুলির প্রধান প্রধান উত্সবকে একই সময়ে একই জায়গায় অনুষ্ঠিত করার জন্য নাগাল্যান্ড সরকারের উদ্যোগে প্রতি বছর ডিসেম্বর মাসের ১ তারিখ থেকে ১০ তারিখ কোহিমাতে অনুষ্ঠিত হয় হর্ণবিল উত্সব (Hornbill Festival)। সারা পৃথিবী থেকে লোক আসে। সেপ্টেম্বর মাস থেকে হোটেল আর গাড়ির বুকিং শুরু হয়। নভেম্বর মাসের পর আর কিছু খালি পাওয়া যায় না। নাগাল্যান্ডের ১৬ জনগোষ্ঠীর কৃষ্টি, ঐতিহ্য, আচার, ইতিহাস, গান, যুদ্ধ, খেলা, লোককাহিনী তুলে ধরা হয় সে উৎসবে।

এই উৎসবের আরও একটি দিক আছে। সেটি হল ‘হর্নবিল রক ফেস্টিভ্যাল’। নাগা-সহ উত্তর পূর্বের প্রতিটি রাজ্যের জনজাতিদের কাছেই ‘রক মিউজিক’ একটি অতি ভালো লাগার বিষয়। এদের প্রায় প্রত্যেকেরই নিজস্ব একাধিক রক ব্যান্ডও আছে। তাই জনজাতির উৎসবে রক মিউজিক থাকাটা অনিবার্য। ‘হর্ন বিল রক ফেস্টিভ্যাল’ তাই দেশের গণ্ডি পেরিয়ে হর্নবিল উৎসবকে আন্তর্জাতিক করে তুলতে সক্ষম হয়েছে। কিসামা গ্রামের অদূরেই ইন্দিরা গান্ধী স্টেডিয়ামে প্রতি দিন সন্ধ্যায় রক গানের আসর বসে। দেশি, বিদেশি বহু নামী অনামী ব্যান্ড পারফর্ম করে। দর্শক হিসেবে উপস্থিত থাকেন দেশির থেকে বেশি বিদেশি পর্যটক। গত এক দশকের বেশি সময় ধরে চলা এই উৎসবটি তাই ‘ফেস্টিভ্যাল অফ ফেস্টিভ্যালস’-এর তকমা পেয়েছে।

ভারতের অন্যতম কনিষ্ঠ রাজ্য নাগাল্যান্ড। আয়তন ৬,৩৬৬ বর্গমাইল। কোহিমা তার সবচেয়ে সুন্দর অলংকার। তবে নাগারা দুর্ধর্ষ জাতি। তাই এই শৈলরাজ্যের প্রতি পর্যটকদের গা ছমছমে আকর্ষণ। পাথরের চাদর বিছানো ছিমছাম ঠাসবুনটের শহর কোহিমা। নাগাল্যান্ডে প্রচুর বৃষ্টি হয়। তাপমাত্রা ১৫/১৬ ডিগ্রি। নয়নাভিরাম প্রকৃতি আর মনোরম আবহাওয়ার জন্য অনেকে কোহিমাকে বলেন প্রাচ্যের সুইজারল্যান্ড।

কিভাবে যাবেন

ঢাকা থেকে শিলং হয়ে গুয়াহাটি যাওয়া যায়। গৌহাটই থেকে প্রতিদিন সকালে কোহিমা যাওয়ার বাস আছে। ৯-১০ ঘণ্টা সময় লাগে। নাগাল্যান্ডের রাজধানী কোহিমা থেকে ১২ কিমি গেলে ‘কিসামা হেরিটেজ ভিলেজ’। এখানেই প্রতি বছর ডিসেম্বর মাসের ১ তারিখ থেকে শুরু হয় ১০ত দিনের এই আদিবাসী জনজাতির উৎসব – হর্ণবিল ফেস্টিভাল।

কোথায় থাকবেন

হোটেল এর মধ্যে জাফু, লিগেসি, আরাদুরা ইন, ভিভর, হেরিটেজ ইত্যাদি। খরচ একটু বেশি হলেও কোহিমায় থাকার সবচেয়ে ভালো জায়গা হোম স্টে।

×

করোনা (COVID-19) ভাইরাস থেকে সতর্ক থাকতে যা করনীয়ঃ

  • সবসময় হাত পরিষ্কার রাখুন। সাবান দিয়ে অন্তত পক্ষে ২০ সেকেন্ড যাবত হাত ধুতে হবে।
  • সাবান না থাকলে হেক্সিসল ব্যবহার করুন। হেক্সিসল না থাকলে হ্যান্ড সেনিটাইজার ব্যবহার করুন।
  • আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে দূরে থাকুন, যতটুকু সম্ভব ভীড় এড়িয়ে চলুন।
  • বাজারে কিছু স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন, করলে হাত সাবান দিয়ে ধুয়ে নিন।
  • টাকা গোনা ও লেনদেনের পর হাত সাবান দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।
  • ওভার ব্রিজ ও সিড়ির রেলিং ধরে ওঠা থেকে বিরত থাকুন।
  • পাবলিক প্লেসে দরজার হাতল, পানির কল স্পর্শ করতে টিস্যু ব্যবহার করুন।
  • হাত মেলানো, কোলাকুলি থেকে বিরত থাকুন।
  • নাক, মুখ ও চোখ চুলকানো থেকে বিরত থাকুন।
  • হাঁচি কাশির সময় কনুই ব্যবহার করুন।
  • আপনি যদি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত না হয়ে থাকেন তবে মাস্ক ব্যবহার আবশ্যক নয় তবে আক্রান্ত হলে সংক্রমণ না ছড়াতে নিজে মাস্ক ব্যবহার করুন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক থাকুন। Stay Home, Stay Safe.

দিক নির্দেশনা