নেপাল ভ্রমণ ও প্রয়োজনীয় তথ্যাবলী

যুক্ত করা হয়েছে
ভালো লেগেছে
1

ঢাকায় অবস্থিত নেপালি দূতাবাসে বাংলাদেশী ও অন্যান্য দেশের নাগরিকদের নেপালের ভিসা প্রসেসিং সম্পন্ন হয়। এখানে শুধুমাত্র ভিজিট ভিসা দেওয়া হয়। মনে রাখবেন, নেপালে কিন্তু বাংলাদেশীদের অন এরাইভাল ভিসা দেয়া হয়।

নেপাল এমব্যাসি

বারিধারা মোড় থেকে কানাডা এ্যাম্বাসির পেছনের রাস্তা দিয়ে ১০০ গজ গিয়ে বাঁয়ে টার্ন নিলেই ডান পাশে নেপাল এমব্যাসির দেখা মিলবে।

জাতিসংঘ সড়ক (UN road) # 2,
বারিধারা, ডিপ্লোমেটিক জোন, ঢাকা।
ফোন: ৯৮৯২৪৯০, ৯৮৯২৫৬৮
ফ্যাক্স: (০০-৮৮-০২) ৮৮২৬৪০১
ই-মেইল: eondhaka@dhaka.net
ওয়েবসাইট: http://www.nepembassy-dhaka.org

সময়সূচী

রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত খোলা থাকে। সকাল ৯.৩০ মিনিট থেকে ১০.৩০ মিনিট পর্যন্ত খোলা থাকে। শুক্রবার ও শনিবার সাপ্তাহিক বন্ধ।

ভিসা প্রসেসিং

  • ভিসা আবেদনপত্র বিনামূল্যে প্রতিদিন সকাল ৯ টা থেকে ১০ টা পর্যন্ত সংগ্রহ করতে হয়।
  • ভিসা আবেদনপত্র জমা নেওয়া হয় প্রতি রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৯.৩০ মিনিট থেকে ১০.৩০ মিনিট পর্যন্ত।
  • সদ্যতোলা পাসপোর্ট সাইজ ছবি এবং আবেদনকারীর স্বাক্ষরসহ শুধুমাত্র বৈধ পাসপোর্টধারী এবং সম্পূর্ন রূপে আবেদনপত্র পূরণকারীদের নিকট থেকে পাসপোর্ট জমা নেয়া হয়।
  • বাংলাদেশের সরকারী কর্মকর্তা, কূটনৈতিক সংস্থার কর্মকর্তা/ কর্মচারী এবং বৈদেশিক পর্যটনকগণ সরাসরি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ভিসা পেয়ে থাকেন।
  • সার্কভূক্ত দেশের নাগরিকদের জন্য একই বছরে প্রথম ভিসার জন্য কোন প্রকার ফি প্রদান করতে হবে না। একই বছরে দ্বিতীয় ভিসার জন্য ভিসা ফি প্রদান করতে হবে।
  • সার্কভূক্ত দেশ ব্যতিত অন্যান্য সকল বিদেশী নাগরিকদের ভিসা ফি প্রদান করতে হয়।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

ক) সদ্যতোলা পাসপোর্ট সাইজের ১ কপি ছবি এবং পাসপোর্টের ফটোকপি।

খ) ‘ব্যবসায়ীক’ পাসপোর্টধারীদের জন্য কাগজপত্রঃ
ট্রেড লাইসেন্স এর ইংরেজী অনুবাদ এবং নোটারীকৃত কপির মূলকপি।
বাংলা ট্রেড লাইসেন্স এর ফটোকপি।
বিজনেস কার্ড।
বাংলা ফটোকপি সাথে আনতে হবে।

গ) ‘চাকুরীজীবি’ পাসপোর্টধারীদের জন্যঃ
অফিসিয়াল প্রত্যয়নপত্র/ ট্রেড লাইসেন্স এর ইংরেজী অনুবাদ ও নোটারীকৃত কপির মূলকপি।
বাংলা ট্রেড লাইসেন্স এর ফটোকপি।
বিজনেস কার্ড
পরিচয়পত্র

ঘ) ‘ছাত্র’ পাসপোর্টধারীদের জন্যঃ
বৈধ পরিচয়পত্রের এবং সর্বশেষ প্রাপ্ত সনদের সত্যায়িত কপি অথবা কলেজ/ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্যয়নপত্র / সুপারিশ পত্র।

ঙ) গ্রুপ ভিসার কাগজপত্র
বিশ্ববিদ্যালয়/ কলেজ/ অফিসের লেটার প্যাডে পাসপোর্ট নম্বর সহ নামের তালিকা লিখতে হবে। লেটার প্যাডে বিভাগীয় প্রধানের অফিসিয়াল সিল স্বাক্ষরসহ সুপারিশ থাকতে হবে।
আবেদন পত্র জমাদানের পূর্বে লেটারটি এই নম্বরে ০০৮৮-০২-৮৮২৬৪০১ ফ্যাক্স করতে হবে।

ভিসা ফি

১৫ দিনের মাল্টিপল ভিসার জন্য ২,০০০ টাকা ফি প্রদান করতে হয়।
৩০ দিনের মাল্টিপল ভিসার জন্য ৩,০০০ টাকা ফি প্রদান করতে হয়।
৯০ দিনের মাল্টিপল ভিসার জন্য ৭,৫০০ টাকা ফি প্রদান করতে হয়।

বিবিধ

টেলিফোনে কোন ভিসা তথ্য প্রদান করা হয় না। অন্যান্য তথ্যের জন্য প্রতি রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ৯ টা থেকে ১০ টার মধ্যে ভিসার ডেস্কে যোগাযোগ করতে হয়।

×

করোনা (COVID-19) ভাইরাস থেকে সতর্ক থাকতে যা করনীয়ঃ

  • সবসময় হাত পরিষ্কার রাখুন। সাবান দিয়ে অন্তত পক্ষে ২০ সেকেন্ড যাবত হাত ধুতে হবে।
  • সাবান না থাকলে হেক্সিসল ব্যবহার করুন। হেক্সিসল না থাকলে হ্যান্ড সেনিটাইজার ব্যবহার করুন।
  • আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে দূরে থাকুন, যতটুকু সম্ভব ভীড় এড়িয়ে চলুন।
  • বাজারে কিছু স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন, করলে হাত সাবান দিয়ে ধুয়ে নিন।
  • টাকা গোনা ও লেনদেনের পর হাত সাবান দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।
  • ওভার ব্রিজ ও সিড়ির রেলিং ধরে ওঠা থেকে বিরত থাকুন।
  • পাবলিক প্লেসে দরজার হাতল, পানির কল স্পর্শ করতে টিস্যু ব্যবহার করুন।
  • হাত মেলানো, কোলাকুলি থেকে বিরত থাকুন।
  • নাক, মুখ ও চোখ চুলকানো থেকে বিরত থাকুন।
  • হাঁচি কাশির সময় কনুই ব্যবহার করুন।
  • আপনি যদি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত না হয়ে থাকেন তবে মাস্ক ব্যবহার আবশ্যক নয় তবে আক্রান্ত হলে সংক্রমণ না ছড়াতে নিজে মাস্ক ব্যবহার করুন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক থাকুন। Stay Home, Stay Safe.