কলকাতা, শিমলা, মানালি, দিল্লি – আমার খরচের আদ্যোপান্ত

যুক্ত করা হয়েছে
ভালো লেগেছে
0

ঘুরে এলাম কলকাতা, শিমলা, মানালি, দিল্লি। আগ্রহী ভ্রমন পিপাসু বন্ধুদের জন্যে আমার খরচের লিস্টি এখানে টাঙ্গিয়ে দিলাম। বলে নেই আগেই – আমাদের ছিলো ৪ জনের গ্রুপ, খরচ ২ জনেরটা দিলাম (আমি আর আমার বিয়া করা বউ 🙂 )

২৬/০৬/১৭/

ঢাকা থেকে কলকাতা রওনা। নন-এসি বাস- ৯০০*২= ১৮০০/- (রয়াল কোচ। সার্ভিস ভাল না।)
পথে খাওয়া— ২০০/-

২৭/০৬/১৭

কলকাতা মারকুইস স্ট্রিট্ এ রাত্রি যাপন। হোটেল ভাড়া – ১৫০০/- + খাবার ৩০০/- (এখান থেকে রূপি হিসাব শুরু)

২৮-০৬-১৭

কলকাতা ঘুরাঘুরি + খাবার সকাল + দুপুর= ৬০০/-। রাতে কালকা মেইল এ করে কালকার পথে রওনা। ট্রেন ভাড়া- ৬৪০*২= ১২৮০/- রাতের খাবার… ২৫০/-

২৯/০৬/১৭

সারাদিন — রাত ট্রেন জার্নি করে পরের দিন ৩০/০৬/১৭ তারিখ ভোর ৪.৩০ এ কালকা পৌছাই…। ট্রেনে খাবার খরচ— ২৫০*২=৫০০/-

৩০/০৬/১৭

ভোর ৫.১০ এ কালকা থেকে টয় ট্রেনে করে শিমলার উদ্দেশে ৫ ঘণ্টার যাত্রা । ভাড়া – ৪৫০*২=৯০০/- ট্রেন এ সকালের নাস্তা ফ্রী, সকাল ১০.৩০ এ শিমলা।
মল রোডে হোটেল ভাড়া ১৬০০/-। সারাদিন ওখানেই ঘরাঘুরি ও খাওয়া- দাওয়া – ৫০০/- রাতে ঘুম।

০১/০৭/১৭

ভোরে নাস্তা ১২০/-। ৯.০০ টায় গাড়ি রিজার্ভ করে শিমলার সব সাইট দর্শন। গাড়ি রিজার্ভ ১০০০/-। আমা্র ভাগে ৫০০/-। বিকেলে কৃষ্টচার্চ হলে সিনেমা দেখা(টিউবলাইট)। টিকেট ৫০*২= ১০০/-। সারাদিনের খাবার খরচ ২৫০/-। রাত ৮.০০ টায় মানালির উদ্দেশ্যে বাসে ভ্রমন। এসি ভলভো – ৫৫০*২= ১১০০/-। রাতে খাওয়া ১৫০/-। ৭ ঘণ্টার জার্নি।

০২/০৭/১৭

৬.৩০ এ মানালি পৌছাই। হোটেল ভাড়া মাত্র ৭০০/-। মল রোডে হোটেল সুরাজ তাল। সুন্দর রুম। মানু টেম্পেল+ ক্লাব হাউস+ খাওয়া-দাওয়া খরচ – ৮০০/-। রাতে ঘুম।

০৩/০৭/১৭

আগে থেকে বুক করা গাড়ি ভোর ৫.৩০ এ হোটেল থেকে তুলে নিয়ে রাওয়ানা হল রোতাং পাস ও সোলাং ভ্যালী এর উদ্দেশ্যে। গাড়ী ভাড়া ৫০০০/-। আমার ভাগে ২৫০০/-। দুপুরে পথে খাওয়া– ২০০/-। বিকেল ৫.৩০ এ দিল্লির বাস। এসি-ভলভো। ভাড়া– ১০৫০*২= ২১০০/-। ১৩ ঘণ্টার জার্নি।

০৪/০৭/১৭

৭.৩০ এ কাশ্মির গেটে বাস থেকে নেমে হোটেল নেই ৪ জন ১ টা… দুপুর পর্যন্ত্ ১৪০০/-। ফ্রেশ হয়েই বের হই ঘুরতে। ইন্ডিয়া গেট, দিল্লি লাল কিল্লা, দিল্লি জামে মসজিদ, চক বাজার ঘুরে হোটেল থেকে চেক আউট করে সরাসরি চলে যাই দিল্লি ট্রেন স্টেশন। ৪.৫০ এ রাজধানি এক্সপ্রেস এ যাব কোলকাতা । সারাদিন ঘুরাঘুরি ও খাওয়া-দাওয়া—- ৬০০/-। ট্রেন ভাড়া– ২৮৬০*২= ৫৭২০/-। ট্রেন এ সব খাবার ফ্রী।

০৫/০৭/১৭

১০.৩০ এ হাওড়া। নাস্তা – ২০০/-।  দুপুরে খাবার – ৩০০/-, ২.৩০ এ শিয়ালদাহ ট্রেন স্টেশন। ট্রেন এ করে বনগাঁ। ভাড়া ৩৫*২=৭০/-। বনগাঁ থেকে পেট্রাপোল বর্ডার। ভাড়া ১০০/-। বর্ডার ক্রস করে খাবার ১০০/-। ৭.৩০ এ ঢাকার বাস। এসি… ৮০০*২=১৬০০/-

০৬/০৭/১৭

আরামবাগ থেকে সিএনজি ২০০/- এ বাসা।

সর্বমোট খরচঃ ২৭৪২০ রুপী। বাংলা টাকায় ৩৪২৭৫ টাকা।

×

করোনা (COVID-19) ভাইরাস থেকে সতর্ক থাকতে যা করনীয়ঃ

  • সবসময় হাত পরিষ্কার রাখুন। সাবান দিয়ে অন্তত পক্ষে ২০ সেকেন্ড যাবত হাত ধুতে হবে।
  • সাবান না থাকলে হেক্সিসল ব্যবহার করুন। হেক্সিসল না থাকলে হ্যান্ড সেনিটাইজার ব্যবহার করুন।
  • আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে দূরে থাকুন, যতটুকু সম্ভব ভীড় এড়িয়ে চলুন।
  • বাজারে কিছু স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন, করলে হাত সাবান দিয়ে ধুয়ে নিন।
  • টাকা গোনা ও লেনদেনের পর হাত সাবান দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।
  • ওভার ব্রিজ ও সিড়ির রেলিং ধরে ওঠা থেকে বিরত থাকুন।
  • পাবলিক প্লেসে দরজার হাতল, পানির কল স্পর্শ করতে টিস্যু ব্যবহার করুন।
  • হাত মেলানো, কোলাকুলি থেকে বিরত থাকুন।
  • নাক, মুখ ও চোখ চুলকানো থেকে বিরত থাকুন।
  • হাঁচি কাশির সময় কনুই ব্যবহার করুন।
  • আপনি যদি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত না হয়ে থাকেন তবে মাস্ক ব্যবহার আবশ্যক নয় তবে আক্রান্ত হলে সংক্রমণ না ছড়াতে নিজে মাস্ক ব্যবহার করুন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক থাকুন। Stay Home, Stay Safe.