হার্টের চিকিৎসক ডাঃ দেভি শেঠির সিরিয়াল এবং কিছু জরুরী তথ্য

যুক্ত করা হয়েছে
ভালো লেগেছে
1
ভারতের হার্টের চিকিৎসক ডাঃ দেভি শেঠি

ভারতের ব্যাংগালোরের নারায়না হেলথ (Narayana Health) হাসপাতালে বাংলাদেশী হার্টের রোগীর সংখ্যাটা আশংকাজনক ভাবে অনেক বেশী। অনেকেই এই হাসপাতাল সম্পর্কে খুব ভালো ভাবে না জেনে যাওয়ার কারনে দিনের পর দিন সময় ও টাকা নষ্ট করছেন। অনেকে বলছেন, আমরা সিরিয়াল নিয়ে এসেছি কিন্তু ডাক্তারকে দেখানো যাচ্ছে না। কিভাবে নিলেন? ই মেইল করেছি বা অমুকের রেফারেন্সে এসেছি ইত্যাদি ইত্যাদি।

ডাঃ দেবী প্রসাদ শেঠি একজন ভারতীয় কার্ডিয়াক সার্জন। পৃথিবীর ১০ জন খ্যাতিমান হৃদরোগ সার্জনের মধ্যে দেবি শেঠি অন্যতম। স্বল্প খরচে উন্নত চিকিৎসা প্রদানে তার পরিচিত বিশ্বব্যাপী। এ অবদানের জন্য তাকে পদ্মভুষণ পদকেও ভূষিত করা হয়েছে। দক্ষিণ ভারতে জন্ম নেওয়া দেবী শেঠি ১৯৮২ সালে কস্তুরবা মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস সম্পন্ন করেন। পরে ইংল্যান্ড থেকে সার্জারী বিষয়ে উচ্চতর ডিগ্রী নেন তিনি। ১৯৯৭ সালের এপ্রিল মাস পর্যন্ত ডা. দেবী শেঠি ৪০০০ শিশুর হার্ট সার্জারী সম্পন্ন করেন, তাদের অধিকাংশই দরিদ্র পরিবার থেকে ওঠে আসা এবং এদের সবাইকেই তিনি বিনামূল্যে চিকিৎসা করেছেন। এখনও ডাঃ দেবী শেঠি এবং তার নারায়ণা হৃদয়ালয় একদিকে দরিদ্র রোগীদের বিনামূল্যে ওপেন হার্ট সার্জারীর মতো ব্যয়বহুল চিকিৎসা দেয়, অন্যদিকে এই হাসপাতালে এসে যেকোনো বয়সের হৃদরোগী যেন অর্থাভাবে চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত না হয়, সেদিকে লক্ষ্য রাখা হয়।

একটা জিনিস খুব ভালো ভাবে মাথায় রাখতে হবে যে, ডাঃ দেভি শেঠি (পুরো নাম ডাক্তার দেভি প্রসাদ শেঠী) এপয়েন্টমেন্ট ছাড়া সরাসরি কোন রোগী দেখেন না। নারায়না হাসপাতালের বেসমেন্টে উনার এপয়েন্টমেন্ট নেয়ার জন্য আলাদা কাউন্টার আছে। সকাল ৮ টার মধ্যে গেলে কাউন্টারে একটা ফর্ম পুরন করতে হয়, যা আন্তর্জাতিক /নতুন রোগীর জন্য। ৫০০ রুপি জমা দিয়ে ফাইল করতে হয়। এই ফাইলটি নিয়ে পাশে আরেকটি কাউন্টারে গেলে, তারা ফাইলটি চেক করে কিছু টেস্ট করতে বলবে (যদি লাগে) এবং একজন কার্ডিওলোজিস্ট এর কাছে রেফার করবে। ঐ কার্ডিওলোজিস্ট যদি মনে করেন ডাঃ দেভি শেঠির (Dr. Devi Shetty) কাছে পাঠানো প্রয়োজন আছে তবে তিনি রেফার করে দিবেন। আর সাধারণ সমস্যা হলে সেখান থেকেই সাজেশন দিয়ে দিবেন আর ডাঃ দেভি শেঠির কাছে পাঠাবেন না। মূলত ডাঃ দেভি শেঠি জটিল সমস্যাগুলো এবং শিশুদের হার্টের সমস্যাগুলো দেখেন। আপনারা চাইলে ওনার ভাই Dr. Gorappa Shetty কে দেখাতে পারেন। উনিও বেশ ভালো।

সব ঠিক থাকলেও ডাঃ দেভি শেঠীর এপয়েন্টমেন্ট পেতে ১-৭ দিন লাগতে পারে। অনেক সময় জটিল অপারেশনে উনি বাইরের (OPD) রোগী দেখেন না। আপনাকে হাতে সময় নিয়ে যেতে হবে, আপনার রোগী যতই জটিল অবস্থায় থাক না কেন। ডাঃ দেভি শেঠি অনেক সময় দেশের বাইরে থাকেন, সেক্ষেত্রে খবর নিয়ে যাওয়া ভালো।

সবচেয়ে ভালো হয় সরাসরি ডাঃ দেভি শেঠিকে What’s app করলে। উনি নিজেই তার রিপ্লাই দেন। তার What’s app নাম্বার 919980199801. শুধু মেসেজ পাঠানো যাবে, কোন কল করা যাবে না।

ই-মেইল করতে পারেনঃ devishetty@narayanahealth.org

ডাঃ দেভি শেঠির কয়েকজন সেক্রেটারীর মধ্যে মিঃ দিপক বেশ হেল্পফুল কিন্তু উনি বাংলা জানেন না। মিসেস তানিয়া বাংলা জানেন কিন্তু খুব একটা হেল্পফুল নন।

এপয়েন্টমেন্ট

নারায়না হাসপাতালে এপয়েন্টমেন্ট নিতে চাইলে এই লিংক থেকে ফর্ম (Appointment Form) পুরন করে পাঠাতে হবে।

কোন ডাক্তার দেখাবেন

সকল ডাক্তার (Narayana Health Doctor’s List) সম্পর্কে জানতে চাইলে কিংবা কোন ডাক্তার দেখাবেন সেটা খুজতে চাইলে এখানে দেখতে পারেন

ল্যাব টেস্ট

কিছু টেস্ট বা ল্যাব পরীক্ষা বাংলাদেশের ভালো হাসপাতাল বা ডায়াগনেস্টিক থেকে করিয়ে নিয়ে গেলে আর ওখানে করতে হয় না। যেমনঃ

  • Complete Blood test (CBC)
  • KFT Random
  • ECG
  • Lipid Profile
  • Glucose test both fasting & after 2 hrs
  • X- Ray chest
  • Echo Color Droppler
  • Angiogram (if needed)

কিছু প্রস্তুতি

  • রোগীকে যদি এঞ্জিওগ্রাম, রিং বা অপারেশন করতে হয় তাহলে অবশ্যই মেডিক্যাল ভিসা লাগবে। তা না হলে বিপদে পড়ে যাবেন । পাসপোর্ট ও ভিসার বেশ কয়েক কপি ফটোকপি সাথে রাখতে হবে, কথায় কথায় এগুলো দরকার হয়।
  • উপরের ক্ষেত্রে অবশ্যই USD (dollar) তে পেমেন্ট করতে হবে। তাই দেশ থেকে ডলার নিয়ে যাওয়া ভালো। ওখানে রেট ভালো না। এঞ্জিওগ্রামে ৩০০ ডলার, রিং বা অপারেশন ৪০০০ ডলার জমা রাখে। পরে যা লাগবে তা রেখে বাকি টাকা ফেরত দেয়।
  • টাকা জমা দিতে হলে International Desk এর verification লাগে। তাই পাসপোর্ট ও ভিসার ফটোকপির সাথে যে হোটেলে উঠেছেন তার বিল কপি লাগবে। International Desk এ মিস রূপসী নামে একজন কলকাতার বাংগালী আছেন উনি গাইড করেন।
  • নরমাল টেস্ট এর জন্য টুরিস্ট ভিসা হলেই চলবে।

ঘুরতে যেয়ে পদচিহ্ন ছাড়া কিছু ফেলে আসবো না,
ছবি আর স্মৃতি ছাড়া কিছু নিয়ে আসবো না।।

  • 119
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    119
    Shares