সিএমসি চক্ষু হাসপাতাল নিয়ে কিছু প্রশ্ন ও তার উত্তর

যুক্ত করা হয়েছে
ভালো লেগেছে
0

সিএমসি এর চক্ষু হাসপাতালটি কোথায়? কিভাবে সহজে চক্ষু হাসপাতাল যেতে পারি?

উত্তরঃ সিএমসি এর মেইন গেট থেকে প্রায় ২ কি.মি দূরে সিএমসি চক্ষু হাসপাতাল। ২ নং বাসে করে ১০ টাকা দিয়ে সিএমসি চক্ষু হাসপাতালে (CMC Schell Eye Hospital) যেতে পারেন। আর যদি বাস না পান তাহলে রিজার্ফ অটো নিয়ে যাবেন বলবেন যে সিএমসি চক্ষু হাসপাতাল যাবো (অবশ্যই হিন্দিতে) ৫০ টাকা ভাড়া নিবে। অটো ড্রাইভার ৬০-৭০ টাকা চাবে তবে দরাদরি করলে ৫০ টাকার বেশি লাগবে না। ভাড়া ঠিক করে তারপর উঠবেন।

সিএমসি চক্ষু হাসপাতাল
সিএমসি চক্ষু হাসপাতাল

তৎকাল এপয়েন্টমেন্ট কি?

উত্তরঃ আর্জেন্ট এপয়েন্টমেন্ট নেয়া অর্থাৎ যেদিন এপয়েন্টমেন্ট নিবেন ঐ দিনেই ডাক্তার দেখবে। নিজের মতো করে বললাম, আসলে ব্যাপারটি এমনি।

সিএমসি চক্ষু হাসপাতালে আমার কোন এপয়েনমেন্ট নেয়া নেই। তাহলে আমি কিভাবে ডাক্তার দেখাতে পারবো?

উত্তরঃ তাহলে রাত ৩.৩০ টার দিকে ডাক্তার এর রেফার্ড স্লিপ এবং ক্রিস কার্ডটা নিয়ে সিএমসি চক্ষু হাসপাতালে চলে যান। কী অবাক হলেন যে রাত ৩.৩০ টায় যেতে বললাম কেন? রাত ৩ টা থেকে লাইনে দাড়ায় তৎকাল এপোইন্টমেন্ট নেয়ার জন্য। তৎকাল এপোইন্টমেন্ট প্রতিদিন ৪০টার মতো দেয়া হয়। সকাল ৭ টার দিক কাউন্টার খোলে।আপনি ৬টার দিক গেলেও এপোইন্টমেন্ট পেতে পারেন তবে ডাক্তার দেখাতে অনেক দেরি হবে। তাই আগে যাবেন আগে সিরিয়াল পাবেন সব কিছুর।

আমি আমার বাবাকে ডাক্তার দেখানোর জন্য রাত ৩.৩৫ এ হাসপাতালে পৌঁছে দেখি আমার সিরিয়াল ৪ নাম্বারে। মানে আমার আগে আরো ৩ জন এসেছে।

প্রাইভেট এপয়েন্টমেন্ট নিতে কি রকম খরচ?

উত্তরঃ প্রাইভেট এপয়েন্টমেন্ট নিতে ৭৫০ রুপি লাগে।

হোটেল থেকে হাসপাতালে যাওয়ার জন্যে এতো রাতে অটো/ট্যাক্সি/সিএনজি পাওয়া যাবে?

উত্তরঃ হ্যা, পাবেন, কোন সমস্যা হবে না। এখানে বলা চলে দিন রাত সব সমান।

আমি রুগী নিয়ে এসেছি সিএমসি হাসপাতালে কিন্তু আমার কোন আইডি নেই। আমি কি সিএমসি চক্ষু হাসপাতালে আমার চোখ দেখাতে পারবো?

উত্তরঃ না পারবেন না! আপনি যদি সিএমসি তে চোখ দেখাতে চান তাহলে আপনাকে 900B. বিল্ডিং থেকে স্লিপ নিয়ে যেতে হবে। 900B. বিল্ডিংয়ে সকাল ৫ টার দিক যেয়ে লাইন ধরে ভিতর ঢুকে বলতে হবে আমি সিএমসি চক্ষু হাসপাতালে চোখ দেখাতে চাই। তখন তারা আপনাকে একটি স্লিপ দিবে। সেই স্লিপ ওখানে দিলে আপনাকে এপয়েন্টমেন্ট দিবে। এর ব্যাতিত আপনাকে ফেরত দিবে। যেদিন চোখ দেখাবেন তার আগের দিনেই স্লিপ্টা নিয়ে রাখবেন কারন চক্ষু হসপিটালে এপয়েন্টমেন্ট পেতে হলে অনেক সকালে যেতে হবে।

×

করোনা (COVID-19) ভাইরাস থেকে সতর্ক থাকতে যা করনীয়ঃ

  • সবসময় হাত পরিষ্কার রাখুন। সাবান দিয়ে অন্তত পক্ষে ২০ সেকেন্ড যাবত হাত ধুতে হবে।
  • সাবান না থাকলে হেক্সিসল ব্যবহার করুন। হেক্সিসল না থাকলে হ্যান্ড সেনিটাইজার ব্যবহার করুন।
  • আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে দূরে থাকুন, যতটুকু সম্ভব ভীড় এড়িয়ে চলুন।
  • বাজারে কিছু স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন, করলে হাত সাবান দিয়ে ধুয়ে নিন।
  • টাকা গোনা ও লেনদেনের পর হাত সাবান দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।
  • ওভার ব্রিজ ও সিড়ির রেলিং ধরে ওঠা থেকে বিরত থাকুন।
  • পাবলিক প্লেসে দরজার হাতল, পানির কল স্পর্শ করতে টিস্যু ব্যবহার করুন।
  • হাত মেলানো, কোলাকুলি থেকে বিরত থাকুন।
  • নাক, মুখ ও চোখ চুলকানো থেকে বিরত থাকুন।
  • হাঁচি কাশির সময় কনুই ব্যবহার করুন।
  • আপনি যদি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত না হয়ে থাকেন তবে মাস্ক ব্যবহার আবশ্যক নয় তবে আক্রান্ত হলে সংক্রমণ না ছড়াতে নিজে মাস্ক ব্যবহার করুন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক থাকুন। Stay Home, Stay Safe.