শিলিগুড়ি

ভালো লেগেছে
0
Ratings
রেটিংস ( রিভিউ)

শিলিগুড়ি (Siliguri) ভারতের উত্তর পশ্চিমবঙ্গের এক অন্যতম মূল শহর। দার্জিলিং, কালিম্পং, ডুয়ার্স, গ্যাংটক ছাড়াও বিভিন্ন পর্যটক আকর্ষণ অন্বেষণের ভিত্তি হিসাবে এই শহর কাজ করে। সামান্য পর্যটন আকর্ষণের সঙ্গে যদিও এটি একটি দ্রুত উন্নয়নশীল আধুনিক শহর, তাও পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং, কালিম্পং এবং ডুয়ার্স অঞ্চল ছাড়াও গ্যাংটক ও সিকিমের অন্যান্য অংশগুলি অন্বেষণ করার জন্য মানুষ শিলিগুড়ি ভ্রমণ করতে আসেন। সফরের শুরুতে বা শেষে কেনাকাটা বা থাকার ব্যবস্থার দিক দিয়ে শিলিগুড়ি একটি ভাল জায়গা।

শিলিগুড়ি ভারতের উত্তর পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলির যোগাযোগের কেন্দ্রবিন্দু হিসেবে কাজ করে। একটি মূল বাণিজ্য কেন্দ্র হিসাবে, এই শহর বিমান, সড়ক ও রেল পথের একটি উন্নত পরিবহন জালবিন্যাস দ্বারা সু-সজ্জিত। আপনি যদি পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং, কালিম্পং এবং সিকিমের গ্যাংটক এর মত শহরগুলি ভ্রমণ করতে আসেন, শিলিগুড়ি হল এই প্রতিটি জায়গার প্রবেশদ্বার।

শিলিগুড়ি এর দর্শনীয় স্থানসমূহ

  • কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়াম
  • হংকং বাজার
  • জলদাপাড়া
  • গরুমারা
  • কোচবিহার
  • মিরিক
  • কালিঝোড়া
  • মহানন্দা নদীবক্ষস্হ সুকনা।

কখন যাবেন

অক্টোবর থেকে মার্চ মাস এই অঞ্চল ভ্রমণের আদর্শ সময়।

শিলিগুড়ি যাওয়ার উপায়

বিমানপথ দ্বারা

বাগডোগরায় একটি অভ্যন্তরীণ বিমানবন্দর আছে যা শহরের কেন্দ্র থেকে প্রায় ১৭ কিমি দূরে অবস্থিত। বাগডোগরা বিমানবন্দর দিল্লি, কলকাতা ও গুয়াহাটির সাথে নিয়মিত বিমান দ্বারা সংযুক্ত। বেশ কিছু সরকারি ও বেসরকারি বিমান পরিবহন সংস্থা এই বিমানবন্দরে বিমানসেবা প্রদান করে থাকে। এই অঞ্চলে একটি বিমানঘাঁটি রয়েছে, যেখান থেকে গ্যাংটক, সিকিমের নিয়মিত হেলিকপ্টার সেবা পাওয়া যায়। ঢাকা থেকে প্রথমে কলকাতা যেয়ে তারপরে বিমানে বাগডোগরা যেতে হবে।

রেলপথ দ্বারা

শিলিগুড়িতে তিনটি গুরুত্বপূর্ণ রেলওয়ে স্টেশন আছে – শিলিগুড়ি টাউন, শিলিগুড়ি জংশন এবং নিউ জলপাইগুড়ি জংশন। নিউ জলপাইগুড়ি রেলওয়ে স্টেশন বর্তমানে এই অঞ্চলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্টেশন। এটি দেশের প্রতিটি প্রধান রেলপথের সাথে সংযুক্ত।

সড়কপথ দ্বারা

বাংলাদেশ থেকে চ্যাংড়াবান্ধা-বুড়িমারি বর্ডার থেকে শিলিগুড়ি খুব সহজেই যাওয়া যায়। শ্যামলী পরিবহনের বাস কল্যাণপুর থেকে ছেড়ে যায়।

শিলিগুড়িতে কেনাকাটা কোথায় করবেন?

শিলিগুড়িতে কেনাকাটা করার জন্য দার্জিলিং চা হল সবচেয়ে জনপ্রিয় উপকরণ। দার্জিলিং চা তর্কসাপেক্ষ ভাবে বিশ্বের সেরা এবং তার চমৎকার সুগন্ধের জন্য বিখ্যাত। খাঁটি দার্জিলিং চা কেনার জন্য শিলিগুড়ি অবশ্যই একটি আদর্শ জায়গা। আপনি শিলিগুড়িতে কেনাকাটা করার সময় তিব্বত বা ভুটানের পশমী বস্ত্র কিনতে পারেন। আপনি এই শহরের যে কোন জায়গায় তিব্বত বা ভুটানের হরেক রকমের পশমী বস্ত্র পাবেন। এছাড়াও শিলিগুড়িতে কেনাকাটা করার সময় আপনি সিকিমের কিছু হস্তশিল্প ও অলঙ্কৃত ক্ষুদ্র মূর্তি কিনতে পারেন, যা একটি উপহার হিসাবে বন্ধু এবং আত্মীয়দের দেওয়া যেতে পারে।

হিল কার্ট রোড এবং সেবক রোডে বহু কেনাকাটার স্থল, শপিং মল ও পথিপার্শ্বস্থ দোকানে আপনি অনেককিছু কেনাকাটা করতে পারেন। শিলিগুড়িতে একটি বাজার আছে যেখানে ইলেক্ট্রিক সামগ্রী পাওয়া যায় যেগুলি বেশীর ভাগই চোরাই। আপনি যদি গ্যাজেট প্রেমী হন, তাহলে আপনি হংকং বাজারে আসতে পারেন যেটি খুবই জনপ্রিয়।

এছাড়াও শিলিগুড়ির বিধান মার্কেটও উল্লেখযোগ্য। বিধান মার্কেট থেকে হংকং মার্কেট চলে যেতে পারেন। এরপরে বিকেলের দিকে বের হয়ে সেবক রোড চলে যেতে পারেন। সেবক রোডে শ্রীলেদার্স, খাদিম, RAYMOND, ARVIND, BIG BAZAR, VIMAL, KFC, DOMMINOS PIZZA থেকে শুরু করে সকল ব্যাণ্ডের দোকানই আছে।

  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares
দিক নির্দেশনা

ঘুরতে যেয়ে পদচিহ্ন ছাড়া কিছু ফেলে আসবো না,
ছবি আর স্মৃতি ছাড়া কিছু নিয়ে আসবো না।।

আপনার রিভিউ দিন

* বাধ্যতামূলক ভাবে পূরণ করতে হবে।

Sending