পুনাখা

ভালো লেগেছে
1

পুনাখা ভূটানের একটি শহর এবং থিম্পু থেকে ৭২ কিমি দূরে অবস্থিত। পুনাখা ১৯৫৫ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত  ভুটানের রাজধানী এবং সরকারের আসন ছিল, যখন রাজধানী থিম্পুতে সরানো হয়েছিল। বর্তমানে ভুটানের শীতকালীন রাজধানী এই পুনাখা৷ রাজধানী থিম্পু থেকে পুনাখাতে গাড়ীতে আসতে  প্রায় ৩ ঘন্টা সময় লাগে। থিম্পু থেকে দোচুলা পাস হয়ে ড্রাইভ করে পৌঁছানো যায় পুনাখায়। দোচুলা ভুটানিদের পূণ্য ভূমি। অসংখ্য ধর্মীয় নকশাখচিত ছোট ছোট ধর্মীয় পতাকায় দোচুলা ছেয়ে আছে। দোচুলায় মূল আকর্ষণ এখানকার বৌদ্ধমঠ। আকাশ পরিস্কার থাকলে ৩০৫০মিটার উঁচু এই পাস থেকে পুরো হিমালয়ান রেঞ্জ দেখা যায়। পুনাখা ভুটানের সব থেকে উর্বর ভ্যালি।

পুনাখা এর দর্শনীয় স্থানগুলোর মধ্যে আছে ফো ছু এবং মো ছু নদী এবং বিখ্যাত পুনাখা জং। এছাড়া ন্যাশনাল লাইব্রেরি, হ্যান্ডিক্রাফট এম্পেরিয়াম, পেন্টিং স্কুল এবং ট্র্যাডিশনাল মেডিক্যাল ইনস্টিটিউটও দেখে আসতে পারেন।

পুনাখা (Punakha) এর একটা বড় আকর্ষণ এখন হয়ে উঠেছে রাফটিং। পাহাড়ি নদীপথে চারপাশের চোখজুড়োনো ছবির মতো দৃশ্য দেখতে দেখতে এগোনো। রাফটিং শুনলেই যে অ্যাডভেঞ্চারের কথা মনে হয়, তেমন গা ছমছমে ব্যাপার এখানে নেই। গাইডরা পাখিপড়া করে বুঝিয়ে দেবেন কখন কী করতে হবে। শুধু সেটুকু মেনে চললেই হল। খরচ পিক সিজনে মাথাপিছু দু’হাজার টাকা। নদীপথে ১৪ কিলোমিটার যাওয়ার পরে স্থানীয় একটি হোটেলে পোশাক বদলের ব্যবস্থা থাকে। সকাল-সকাল পুনাখা পৌঁছে রাফটিং সেরে চলে যেতে পারেন পুনাখা জং এ। ঘুরে দেখতে অনেকটা সময় লাগবে। দুপুরে ফার্টিলিটি টেম্পল ঘুরে চলে যেতে পারেন আশপাশের গ্রামে।

কখন যাবেন

যে কোনও সময়। তবে মার্চ থেকে মে এবং সেপ্টেম্বর থেকে নভেম্বর সবচেয়ে ভাল।

কিভাবে যাবেন

থিম্পু থেকে ট্যাক্সি করে পুনাখা যাওয়া যায়। সময় লাগে ৩ ঘন্টার মত।

কোথায় থাকবেন

পুনাখায় থাকার জন্যে বেশ কিছু হোটেল আছে। তাদের সম্পর্কে জানতে চাইলে এখানে দেখতে পারেন নয়ত booking.com বা অন্য নামকরা ওয়েবসাইট থেকে বুকিং দিতে পারবেন।

×

করোনা (COVID-19) ভাইরাস থেকে সতর্ক থাকতে যা করনীয়ঃ

  • সবসময় হাত পরিষ্কার রাখুন। সাবান দিয়ে অন্তত পক্ষে ২০ সেকেন্ড যাবত হাত ধুতে হবে।
  • সাবান না থাকলে হেক্সিসল ব্যবহার করুন। হেক্সিসল না থাকলে হ্যান্ড সেনিটাইজার ব্যবহার করুন।
  • আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে দূরে থাকুন, যতটুকু সম্ভব ভীড় এড়িয়ে চলুন।
  • বাজারে কিছু স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন, করলে হাত সাবান দিয়ে ধুয়ে নিন।
  • টাকা গোনা ও লেনদেনের পর হাত সাবান দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।
  • ওভার ব্রিজ ও সিড়ির রেলিং ধরে ওঠা থেকে বিরত থাকুন।
  • পাবলিক প্লেসে দরজার হাতল, পানির কল স্পর্শ করতে টিস্যু ব্যবহার করুন।
  • হাত মেলানো, কোলাকুলি থেকে বিরত থাকুন।
  • নাক, মুখ ও চোখ চুলকানো থেকে বিরত থাকুন।
  • হাঁচি কাশির সময় কনুই ব্যবহার করুন।
  • আপনি যদি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত না হয়ে থাকেন তবে মাস্ক ব্যবহার আবশ্যক নয় তবে আক্রান্ত হলে সংক্রমণ না ছড়াতে নিজে মাস্ক ব্যবহার করুন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক থাকুন। Stay Home, Stay Safe.

দিক নির্দেশনা

আপনার রিভিউ দিন

* বাধ্যতামূলক ভাবে পূরণ করতে হবে।

  1. পুনাখা একটি ছোট্ট শহর। র‍্যাফটিং করতে পারেন পুনাখা নদীতে। বোট প্রতি ৮ হাজার রুপি। এক বোটে ৮ জন উঠতে পারেন। তেমন রিস্কি না। জাস্ট সাহস এবং ওরা যেভাবে বলে সেভাবে কাজ করলে আপনার এঞ্জয় করা কেউ ঠেকাতে পারবে না।