দেবতাখুম, রোয়াংছড়ি, বান্দরবান

দেবতাখুম, রোয়াংছড়ি, বান্দরবান ভ্রমণ

জীবনে প্রথম বান্দরবান গেলাম আর ঘোরাটা শুরু করলাম দেবতাখুম দিয়ে। মেঘনা ব্রিজের কল্যানে ৬ঘন্টা জ্যাম খেয়ে সর্বোমোট ১৫ ঘন্টার ম্যারাথন জার্নি শেষ করে বান্দরবান গিয়ে নামলাম রাত ১০.৪০ এ। নেমে বিপদেই পড়লাম। আমার রুম তো ঠিক করা রোয়াংছড়ি তে। আর ওই দিন (২১/০২/১৯) তো কোথাও কোন সিট ফাঁকা নেই। … বিস্তারিত

দেবতাখুম, বান্দরবান

দেবতাখুম ভ্রমণ

আপনি কি বন্য পরিবেশে সত্যিকারের কায়াকিং-এর অভিজ্ঞতা নিতে চান, খাড়া ৬০০ ফিট দুই পাহাড়ের মাঝে ভেলায় ভাসতে চান তাহলে চলে যান বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলার কচ্ছপতলি ইউনিয়নের অন্তর্গত তারাসা খালের পাড়ে মারমা পাড়া “শীলবান্ধা”র দেবতাখুমে। দেবতাখুম বান্দরবানের থানচি উপজেলার নাফাখুম, ভেলাখুম, সাতভাইখুম, আমিয়াখুমের মতই … বিস্তারিত

তাজিংডং, বান্দরবান
যুক্ত করা হয়েছে

তাজিংডং বিজয়

স্থানীয় উপজাতীয়দের ভাষায় ‘তাজিং’ শব্দের অর্থ বড় আর ‘ডং’ শব্দের অর্থ পাহাড়, এ দুটি শব্দ থেকে তাজিংডং পর্বতের নামকরণ করা হয়। সরকারি ভাবে, একে বিজয় পর্বত নামেও সম্বোধন করা হয়। তাজিংডং বাংলাদেশের বান্দরবন জেলার রুমা উপজেলার রেমাক্রী পাংশা ইউনিয়নে সাইচল পর্বতসারিতে অবস্থিত। এটি বান্দরবান জেলার রুমা উপজেলার, উপজেলা সদর থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এই পর্বতের অবস্থান। … বিস্তারিত

যোগি হাফং

বর্ষায় যোগি হাফং চূড়া আরোহণ

যোগি হাফং (Jogi Haphong) যা বাংলাদেশের ৪র্থ সর্বোচ্চ চূড়া। ২০১৮ সালের আগস্ট মাসে যোগি হাফং এর চূড়া জয় করতে গিয়েছিলাম। মাসের শেষের দিকে তখন, কলেজের পরিক্ষা শেষে মাত্রই কুরবানির বন্ধ দিয়েছিল। লম্বা ছুটি পেলে, আমার কখনো ঘরে বসে থাকতে মন চাই না। এই বন্ধে চেয়েছিলাম, বাসাই না থেকে দূরে কোথাও যায়। … বিস্তারিত

নাফাখুম, বান্দরবান

বান্দরবান ভ্রমণ – (নীলগিরি, বগালেক, রেমাক্রি এবং নাফাকুম)

খুব কম সময়ের প্ল্যানের মধ্যে চলে গেলাম বান্দরবান। অনেক জায়গা কভার দেয়ার ইচ্ছা ছিল। বাকিদের নিয়ে যতটুকু কভার দিসি আলহামদুলিল্লাহ। ট্যুরের খরচ শেষে দেয়া আছে। ১ম দিন জানুয়ারি মাসের ১০ তারিখ রাত ১০ঃ৩০ এ বাস ছিলো। বাসে করে পরেরদিন সকাল ৬টায় বান্দরবন পৌছে গেলাম। সেখান থেকে নাস্তা করে চাদের গাড়ি নিলাম … বিস্তারিত

পালং খিয়াং ঝর্ণা

পালং খিয়াং ঝর্ণা

পালং খিয়াং (Palong Khiyang) ঝর্ণাটি বান্দরবন জেলার আলীকদম উপজেলায় অবস্থিত। তবে দুর্গমতার কারণে খুব বেশী পর্যটক সেখানে পৌঁছাতে পারে নি। তৈনখালের পাথুরে রাস্তা দিয়ে, কখনো-বা উঁচু পাহাড় ডিঙ্গিয়ে পালং খিয়াং ঝর্ণায় যেতে হয়। তবে ঝর্ণায় যাওয়ার পথে তৈনখালের যে নৈসর্গিক রূপ তাও পর্যটকগণের নিকট আকষর্ণের … বিস্তারিত

তাজিংডং

তাজিংডং – বিভীষিকাময় জোকের পাহাড়

ছোটবেলা থেকেই শুনে আসছি তাজিংডং নাকি বাংলাদেশের সর্বোচ্চ পাহাড় কিন্তু এর ভয়াবহতা সম্পর্কে তেমন কিছু কখনোই জানা হয়নি। সত্যি বলতে ছোটবেলা থেকেই প্রহর গুনতাম আমিও একদিন তাজিংডং এর চূড়ায় ওঠব। তাই নাফাখুম, আমিয়াখুম আমাকে যতটা না টানত, আকৃষ্ট করত তারচেয়ে বেশি টানত এই তাজিংডং। আর ফেসবুকে ইন্টারনেটে … বিস্তারিত

দেবতাখুম

দেবতাখুম

নৈসর্গীক বান্দরবানকে বলা হয় খুমের স্বর্গরাজ্য আর এই রাজ্যের শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট নিঃসন্দেহে দেবতাখুম (Debotakhum) এর কাছেই যাবে। স্থানীয়দের মতে প্রায় ৫০-৭০ ফুট গভীর এই খুমের দৈর্ঘ্য ৬০০ ফুট যা ভেলাখুম থেকে অনেক বড় এবং অনেক বেশী বন্য। দেবতাখুম যেতে হলে আপনাকে প্রথমে … বিস্তারিত

সাইরু হিল রিসোর্ট

সাইরু হিল রিসোর্ট

সৌন্দর্যের দিক থেকে প্রথম সারিতে থাকা একটি অনিন্দ্য সুন্দর আর মনোরম রিসোর্ট – সাইরু হিল রিসোর্ট। বান্দরবান শহর হতে প্রায় ২০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এটি। সাইরু রিসোর্ট সম্ভবত বান্দরবানের সবচেয়ে এক্সপেন্সিভ রিসোর্ট। তবে অসম্ভব রকম সুন্দর একটা জায়গা সাইরু। এটি দেখে … বিস্তারিত

লামা, বান্দরবান

লামা

বান্দরবান জেলার লামা সবার কাছেই যেন একটা স্বর্গ রাজ্য। ১১টি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর বসবাস স্থল লামা যে কোন ভ্রমণ পিপাসু মানুষের মন কাঁড়বে। এখানে দেখে মুগ্ধ হবার মত আছে অনেক কিছুই। চকরিয়া থেকে লামা যাওয়ার রাস্তা হলো এর শুরুর আকর্ষন। লামার রাস্তায় প্রবেশ করার সাথে … বিস্তারিত

প্রান্তিক লেক, বান্দরবান

প্রান্তিক লেক

প্রায় ২৫ একর জায়গা জুড়ে সৃষ্ট কৃত্রিম জলাশয় প্রান্তিক লেক। প্রান্তিক লেক এর আয়তন ২৫ একর হলেও পুরো কমপ্লেক্সটি আরো অনেক বড়। ৬৮ একর এলাকা জুড়ে পাহাড় বেষ্টিত ২৫ একরের বিশাল লেক যা বগা লেক এর থেকেও বড়। জেলার এক প্রান্তে অবস্থিত বলে এই লেকের নামকরণ হয় প্রান্তিক লেক। … বিস্তারিত

কেওক্রাডং ভ্রমণ

কেওক্রাডং ভ্রমণ

আমি ছিলাম বাবা-মায়ের ছোট্ট আদরের মেয়ে! চার দেয়ালের মাঝেই কাটছিলো আমার জীবন। হঠাৎ এলো কিছু পরিবর্তন। এলাম ঘরের বাইরে, হয়ে গেলাম উড়ে উড়ে, ঘুরে বেরানো ডানা ছাড়া এক পাখি। তারই ধারাবাহিকতায় ফেসবুক ভিত্তিক একটি ভ্রমন গ্রুপের এর সাথে চলে গেলাম পাহাড়ি পথে!! বলা বাহুল্য বান্দরবান জেলায় এটা আমার প্রথম ভ্রমন তথা প্রথম ট্রেকিং অভিজ্ঞতা। ভয় ছিলো পারবো … বিস্তারিত