সান্তা ক্লজের বাড়ি

ভালো লেগেছে
0

ফিনল্যান্ডের ল্যাপল্যান্ডের রোভানিয়েমিতে রয়েছে শিশুদের সেই স্বপ্নরাজ্য, সান্তা ক্লজের বাড়ি (Village of Santa Clause)। ফিনল্যান্ডে সান্তা ক্লজের নাম ‘জৌলুপুক্কি’। ২০১০ সালে, ল্যাপল্যান্ডকেই (Lapland) সরকারি ভাবে ঘোষণা করা হয় সান্তার বাসস্থান হিসেবে। কারণ, এই গ্রামটির অবস্থান মেরুবৃত্তের মধ্যেই। সান্তার এই বাড়ির উপর দিয়েই কাল্পনিক আর্কটিক লাইন বা উত্তর মেরু রেখা চলে গিয়েছে। এখানকার বাসিন্দাদের কী মজা। ইচ্ছে হলেই এপার-ওপার। এ এক অদ্ভুত জায়গা। বছরে একদিন, ২২ ডিসেম্বর এখানে সূর্যের ঘুমই ভাঙে না। আবার চব্বিশ ঘণ্টাই সূর্যের দেখা মেলে ২১ জুনে।

এ যেন বরফের স্বর্গরাজ্য! রাস্তা, মাঠঘাট, বাড়ির ছাদ, গাছ… সব বরফে ঢাকা। এখানে বছরের প্রত্যেক দিন একটি নির্দিষ্ট সময়ে সান্তা ক্লজ সকলের সঙ্গে দেখা করেন। ভালবাসা, ঐক্যের বাণী ছড়িয়ে দেন পৃথিবীতে। এখানকার পরিবেশে, চার দিকে উৎসবের আমেজ। যেন আজকের দিনটাই বড়দিন। সান্তার বাড়ি ঘিরে বিনোদনের নানা আয়োজন। সুভেনির শপ, কাফে, রেস্তরাঁ থেকে ইগলু থিম পার্ক, রেনডিয়ারে টানা স্লেজগাড়িতে চড়ে ঘোরা, স্নোমোবিল… আকর্ষণ অনেক। এখানে সান্তার নিজস্ব পোস্ট অফিসও আছে। সেখান থেকে পৃথিবীর যে কোনও প্রান্তে চিঠি পোস্ট করা যায়। ছোটদের সঙ্গে বড়রাও দেদার মজায় মাতে।

বড়দিন উপলক্ষে, ল্যাপল্যান্ডে প্রতি বছর প্রায় ৩ লাখ পর্যটকের ঢল নামে এবং তাঁদের প্রত্যেকের সঙ্গেই দেখা করেন সান্তা।

যাওয়ার উপায়

সান্তা ক্লজের বাড়িতে যেতে চাইলে আপনাকে ফিনল্যান্ডের হেলসিঙ্কি থেকে ফিনিস ডাবল ডেকার ট্রেন সান্তাক্লজ় এক্সপ্রেসে চেপে যেতে হবে ল্যাপল্যান্ডের রোভানিয়েমিতে। স্টেশন থেকে বরফের সাদা চাদরে মোড়া রাস্তা দিয়ে বাস পৌঁছে দিবে সান্তাক্লজ় ভিলেজে।

×

করোনা (COVID-19) ভাইরাস থেকে সতর্ক থাকতে যা করনীয়ঃ

  • সবসময় হাত পরিষ্কার রাখুন। সাবান দিয়ে অন্তত পক্ষে ২০ সেকেন্ড যাবত হাত ধুতে হবে।
  • সাবান না থাকলে হেক্সিসল ব্যবহার করুন। হেক্সিসল না থাকলে হ্যান্ড সেনিটাইজার ব্যবহার করুন।
  • আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে দূরে থাকুন, যতটুকু সম্ভব ভীড় এড়িয়ে চলুন।
  • বাজারে কিছু স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন, করলে হাত সাবান দিয়ে ধুয়ে নিন।
  • টাকা গোনা ও লেনদেনের পর হাত সাবান দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।
  • ওভার ব্রিজ ও সিড়ির রেলিং ধরে ওঠা থেকে বিরত থাকুন।
  • পাবলিক প্লেসে দরজার হাতল, পানির কল স্পর্শ করতে টিস্যু ব্যবহার করুন।
  • হাত মেলানো, কোলাকুলি থেকে বিরত থাকুন।
  • নাক, মুখ ও চোখ চুলকানো থেকে বিরত থাকুন।
  • হাঁচি কাশির সময় কনুই ব্যবহার করুন।
  • আপনি যদি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত না হয়ে থাকেন তবে মাস্ক ব্যবহার আবশ্যক নয় তবে আক্রান্ত হলে সংক্রমণ না ছড়াতে নিজে মাস্ক ব্যবহার করুন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক থাকুন। Stay Home, Stay Safe.

  • 14
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    14
    Shares
দিক নির্দেশনা

আপনার রিভিউ দিন

* বাধ্যতামূলক ভাবে পূরণ করতে হবে।