নংরিয়াত

ভালো লেগেছে
1
ট্রিপ
১ দিন
ট্রেকিং গ্রেড
বিস্তারিত দেখুন

নংরিয়াত (Nongriat) হচ্ছে পাহাড়ের খাদে এমন একটি গ্রাম যেখানে পায়ে হাটা ছাড়া অন্য কোন ভাবে যাওয়া সম্ভব না। তৃর্না (Tyrna Village) থেকে ৩৭০০+ সিড়ি বেয়ে নেমে (মাঝে মাঝে উঠতেও হয় সিড়ি বেয়ে) যেতে হয় নংরিয়াতে। নংরিয়াত গ্রামে আছে ডাবল ডেকার রুট ব্রিজ, সিংগেল রুট ব্রিজ, ন্যাচারাল সুইমিং পুল, সাসপেনশন ব্রীজ এবং রেইনবো ফলস। শীতকালে গেলে এখানকার পানি একদম নীল এবং স্বচ্ছ পাওয়া যায়। তবে বর্ষায় গেলে পাবেন আর এক ভয়ংকর পানির দৃশ্য।

রেইনবো ফলস যার স্থানীয় নাম Wei phngam Falls. রেইনবো ফলসের বাংলা অর্থ রংধনু দেখা। রেইনবো ফলস’ এর নামকরণের কারন হচ্ছে এর বৈশিষ্ট্য। সূর্য যখন ঠিক এই ঝর্ণার মাথার উপর উঁকি দেয় ঠিক তখন নিচের জলের মধ্যে রঙধনু দেখা যায় কিন্তু আকাশ তখন রঙধনু শুন্য। আর এই কারণেই এর নাম ‘রেইনবো ফলস’। এটি হচ্ছে মেঘালয়ের অন্যতম হিডেন ট্যুরিস্ট স্পট, অনেকে অফবীট লোকেশনও বলে থাকেন। দুর্গম পথ আর কষ্টকর ট্রেকিং এর কারণে এখানে ট্যুরিস্ট সংখ্যায় খুব কমই আসে বলা চলে।

এ ঝর্ণা বর্ষাকালে এতটাই দানবীয় থাকে যে এর কাছাকাছি যাওয়াই কঠিন। এমনকি ছবি তুলতেও বেশ বেগ পেতে হয়, কারন বিপুল পরিমান পানি নীচে পরে বাস্পের মতো দিকবিদিক ছুটে আসে! শীতকালে যাবার বড় আরেকটা সুবিধা হচ্ছে, ঝর্ণার পানি নীচে পড়ে নীলাভ রঙ ধারন করে। পুকুরের অগভীর যায়গা স্বচ্ছ, আর গভীর অংশটুক নীল।

কিভাবে যাবেন

মেঘালয়ের চেরাপুঞ্জি থেকে গাড়ীতে ৩০-৪০ মিনিট এর পথ তৃর্না গ্রাম। এই তৃর্না থেকেই মুলত ট্রেকিং শুরু তবে ট্রেকিং এর কথা শুনে ভয়ের কোন কারন নেই। কারন ট্রেকিং হলেও সিড়ি করে দেয়া আছে। এখান থেকে ৩৭০০ (কম/ বেশি) সিড়ি ট্রেকিং করে নিচে নামলেই নংরিয়েত গ্রাম। পাহাড়ি গ্রাম হলেও খুব গুছানো এই নংরিয়াত গ্রাম। আর এই নংরিয়াত গ্রামের পরই দেখা মিলবে ডাবল ডেকার লিভিং রুট ব্রিজ। এই ট্রেকিং এর মাঝে পাবেন কয়েকটি সাসপেনসন (Suspension Bridge) ও গাছের শিকড়ের ব্রিজ (লিভিং রুট ব্রিজ) আর মাঝ পথে ন্যাচারাল সুইমিংপুল। চাইলে ন্যাচারাল সুইমিংপুলে একটু গা ও ভিজিয়ে নিতে পারবেন।

তৃনা গ্রাম থেকে বাশের লাঠি কিনে নিয়ে সিড়ি বেয়ে নামা শুরু করুন। যদি ওইদিনই ব্যাক করার পরিকল্পনা থেকে থাকে, তাহলে আপনারা চাইলে ব্যাগ তেরনা ভিলেজে রেখে যেতে পারবেন। আবার ব্যাক করার সময় ব্যাগ নিয়ে নিলেই হয়। নংরিয়াত যাওয়ার সিড়িগুলো একদম সিমেন্টেড সিড়ি, মাঝে মাঝে কিছু জায়গায় রেলিং আছে, কিছু জায়গায় নাই। রাস্তা ভুল করার সুযোগ খুব একটা নেই, এই সিড়ি দিয়েই নামতে হয়। এক জায়গায় কনফিউশন লাগে, সেখানে একদিকে সিংগেল ডেকার রুট ব্রিজ আছে, যেতে ২০-৩০ মিনিট সময় লাগে। আশেপাশে কাউকে জিজ্ঞেস করলেই বলে দিবে কোন দিকে যেতে হবে। বেশ কিছুদুর নামার পর দেখা মিলবে এই রুট এর প্রথম সাসপেনশন ব্রিজের। এরপর কিছুদূর গিয়ে ২য় সাস্পেনশান ব্রিজ। এটা পার হওয়ার পর কিছুদুর উঠতে হয়। আবার তারপর নামা শুরু। এভাবে চড়াই এবং উতরাই করে নংরিয়াত পৌছাতে হবে।

নংরিয়াত গ্রাম থেকে ন্যাচারাল সুইমিংপুল (Natural Swimming Pool) যেতে প্রায় ৩০ মিনিট লাগবে এবং রেইনবো ফল যেতে আরও ৩০ মিনিট। তবে রেইনবো ফলস যাওয়ার পথটা কঠিন, কারন শুধু উপরের দিকে হ্যান্ডমেড পাথুরে সিড়ি বেয়ে উঠতে হবে, সিমেন্টেড সিড়ি নাই এবং অনেক খাড়া সিড়ি!

তবে মনে রাখবেন তৃনা গ্রাম থেকে ৫.০০ টার পর থেকে নংরিয়াত এর উদ্দেশ্যে ট্যুরিস্ট প্রবেশ নিষেধ।

থাকবার ব্যবস্থা

শিরিন হোমস্টে (Serene homestay) – এখানে পারহেড ৩০০ রুপিতে ডর্ম এ থাকা যায়। ডর্ম মানে এক রুমে ৫ জন। রাতের খাওয়াও সেখানেই, তার জন্য আলাদা পে করতে হবে। শিরিন হোমস্টেতে খাওয়া দাওয়া, পুরোপুরি ভেজ, তারা নন-ভেজ” রাধে না।

×

করোনা (COVID-19) ভাইরাস থেকে সতর্ক থাকতে যা করনীয়ঃ

  • সবসময় হাত পরিষ্কার রাখুন। সাবান দিয়ে অন্তত পক্ষে ২০ সেকেন্ড যাবত হাত ধুতে হবে।
  • সাবান না থাকলে হেক্সিসল ব্যবহার করুন। হেক্সিসল না থাকলে হ্যান্ড সেনিটাইজার ব্যবহার করুন।
  • আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে দূরে থাকুন, যতটুকু সম্ভব ভীড় এড়িয়ে চলুন।
  • বাজারে কিছু স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন, করলে হাত সাবান দিয়ে ধুয়ে নিন।
  • টাকা গোনা ও লেনদেনের পর হাত সাবান দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।
  • ওভার ব্রিজ ও সিড়ির রেলিং ধরে ওঠা থেকে বিরত থাকুন।
  • পাবলিক প্লেসে দরজার হাতল, পানির কল স্পর্শ করতে টিস্যু ব্যবহার করুন।
  • হাত মেলানো, কোলাকুলি থেকে বিরত থাকুন।
  • নাক, মুখ ও চোখ চুলকানো থেকে বিরত থাকুন।
  • হাঁচি কাশির সময় কনুই ব্যবহার করুন।
  • আপনি যদি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত না হয়ে থাকেন তবে মাস্ক ব্যবহার আবশ্যক নয় তবে আক্রান্ত হলে সংক্রমণ না ছড়াতে নিজে মাস্ক ব্যবহার করুন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক থাকুন। Stay Home, Stay Safe.

দিক নির্দেশনা

আপনার রিভিউ দিন

* বাধ্যতামূলক ভাবে পূরণ করতে হবে।