ফু থাপ বোয়েক

Ratings
রেটিংস ( রিভিউ)

থাইল্যান্ড এর ফেচাবেন প্রদেশের লম কাও জেলার প্রধান আকর্ষন হলো ফু থাপ বোয়েক যা ফেচাবেন পর্বতমালার সর্বোচ্চ পয়েন্ট হিসেবে বিবেচিত হয়। এটি সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৭৬৮ মিটার উঁচু। এটি একটি পাহাড়ি এলাকা এবং অধিক উচ্চতার জন্যে সারা বছরই এখানে ঠান্ডা আবহাওয়া অনুভূত হয়। গরমের সময় এখানের তাপমাত্রা ২০ ডিগ্রী সেলসিয়াসের মত থেকে থাকে। এটি থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংকক থেকে ৪০০ কিলোমিটার দূরের হওয়া স্বত্তেও ছুটির দিনের ঘোরার জায়গা হিসেবে ফু থাপ বোয়েক কে দারুন পছন্দ পর্যটকদের।

সকাল বেলার প্রথম সূর্যোদয় দেখার জন্যে হাজারো পর্যটক ছুটে আসেন এখানে। সকালবেলা কুয়াশা আর মেঘের মাখামাখি থাকে পুরো পাহাড় জুরে। এছাড়া এখানের মং (Hmong Hill Tribes) পার্বত্য আদিবাসীরা পাহাড়ে বাধাকপির চাষ করে থাকেন যা এখানকার সৌন্দর্য্য আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। পাহাড়ের ভ্যালীর সৌন্দর্য্য, বাধা কপির জুম চাষ ছাড়াও এখানে দেখার মত একটি সুন্দর মন্দির আছে।

মেঘের সমুদ্রে সকালে সূর্যোদয় দেখতে হলে আপনাকে রাতে ওখানে থেকে যাওয়াটাই উত্তম হবে কারন খুব সকালে উঠতে হবে যখন তাপমাত্রা থাকে ১৪ ডিগ্রি এর কাছাকাছি যা শীতকালে আরও কমে যায়। তাই কিছু গরম কাপড় সাথে রাখতে হবে।

কখন যাবেন

ডিসেম্বর থেকে জানুয়ারি মাস পর্যন্ত শীতকাল থাকে এখানে এবং পাহাড়টি তখন চেরি ফুলে আচ্ছাদিত হয়ে যায়। যার কারনে এই সময়টা ভ্রমণের জন্যে সব থেকে উপযুক্ত সময় হিসেবে ধরা হয়। এছাড়া বর্ষাকালে সকাল-সন্ধ্যা সব সময়ই মেঘাছন্ন থাকে ফু থাপ বোয়েক (Phu Thap Boek)। যার কারনে মেঘবিলাসীদের আনাগোনা লেগেই থাকে এই সময়টাতে।

মেঘের সমুদ্র দেখতে চাইলে অক্টোবর হবে সেরা সময়।

কিভাবে যাবেন

ব্যাংকক থেকে প্লেনে কিংবা বাসে চেপে চলে যেতে পারবেন ফেচাবেন। প্লেনে গেলে সময় লাগবে ৫৫ মিনিটের মত এবং বাসে গেলে সময় লাগবে ৫ঃ৩০ ঘন্টার মত। ফেচাবেন (Phetchabun) বাসস্ট্যান্ড থেকে জীপ ভাড়া করে যেতে হবে ফু থাপ বোয়েক এ, এক্ষেত্রে ৩০০০ বাথ এর মত পড়বে রিজার্ভ গেলে, চাইলে শেয়ারড ভাবেও যাওয়া যাবে।

কোথায় থাকবেন

সকালের সৌন্দর্য্য দেখতে হলে রাতে থাকতে হবে ফু থাপ বোয়েক এ, আর এ জন্যে এখানে আছে প্রচুর রিসোর্ট এবং সেই সাথে বেশ কিছু সরকারি তাবু। রিসোর্টে থাকতে চাইলে আপনাকে গুনতে হবে ৪০০-৮০০ থাই বাথ এবং তাবুতে থাকতে লাগবে ৩০০-৬০০ থাই বাথ। এ ছাড়া কটেজগুলোতে থাকতে চাইলে গুনতে হবে ২০০০-৩০০০ বাথ যা গ্রুপ হিসেবে গেলে সস্তাই পড়বে।

খাওয়া দাওয়া

ফু থাপ বোয়েক এ খাওয়া দাওয়া করার জন্যে অনেক রেস্টুরেন্ট আছে যেখানে থাই, চাইনীজ, ওয়েস্টার্ন সব ধরনের খাবারই মিলবে।

ঘুরতে যেয়ে পদচিহ্ন ছাড়া কিছু ফেলে আসবো না,
ছবি আর স্মৃতি ছাড়া কিছু নিয়ে আসবো না।।

View Direction

আপনার রিভিউ দিন

* বাধ্যতামূলক ভাবে পূরণ করতে হবে।

Sending