আথিরাপল্লি জলপ্রপাত

আথিরাপল্লি জলপ্রপাত

ভারতের নায়াগ্রা নামে পরিচিত আথিরাপল্লি জলপ্রপাত। চারিদিকে সুবজের মধ্যে ৩৩০ ফুট উচ্চতা থেকে জলরাশি নেমে আসছে মাটিতে। মনমুগ্ধকর এই দৃশ্য আপনি দেখতে পাবেন কেরালা গেলেই। এখানকার থিসার জেলায় জলপ্রপাতটি অবস্থিত। কেরালা এর সবচেয়ে বড় জলপ্রপাত আথিরাপল্লি জলপ্রপাত যা তার অসাধারণ সৌন্দর্যের জন্য বিখ্যাত। এটিকে ভারতের নায়াগ্রাও বলা হয়ে থাকে। আথিরাপল্লি এলাকাটি জঙ্গল সাফারির জন্য বিখ্যাত। এখানকার বিচিত্র … বিস্তারিত

মুন্নার, কেরালা

মুন্নার

কেরালা কে বলা হয় গডস ওউন কান্ট্রি। কেরালাকে একটি পছন্দের গন্তব্যস্থল হিসেবে বেছে নেওয়ার পিছনে মুন্নার এর বিশেষ অবদান রয়েছে। এখানকার মুন্নার এর চা বাগানে ঘেরা পরিবেশে কয়েকদিন কাটালেই মন ভালো হয়ে যাবে সন্দেহ নেই। মুথিরাপুঝা, নাল্লাথান্নি এবং কুন্দলা এই তিন নদীর … বিস্তারিত

গুরুদোংমার লেক, লাচেন

লাচেন, সিকিম

উত্তর সিকিমের পাহাড়ি গ্রাম লাচেন। সিকিমের রাজধানী গ্যাংটক থেকে ১২৬ কিমি দূরে- সমুদ্রতল থেকে ৯৪০০ ফিট উপরে অবস্থিত এই লাচেন গ্রামটির নামের মানে – বড় গিরিখাত। লাচেন থেকে তিব্বত যাওয়া যায় খুব সহজে। এই গ্রামটির নিজস্ব প্রশাসন ব্যবস্থা রয়েছে। তাকে বলে – যুমসা। এর পরিচালককে বলে – পিপন। উত্তর সিকিমের লাচেন যে খুবই জনপ্রিয়, তার … বিস্তারিত

ডুয়ার্স

ডুয়ার্স

শিলিগুড়ি শহর থেকে সামান্য দূরেই রয়েছে অসাধারন এক ট্র্যাভেল ডেস্টিনেশন – ডুয়ার্স। ডুয়ার্স ভারতের উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলে ভূটান সংলগ্ন এলাকায় অবস্থিত। ডুয়ার্স পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য ও আসাম রাজ্যের সংলগ্ন এলাকায় এবং পূর্ব হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থিত। এখানকার বসবাসকারী মানুষজনেরা বাংলা, আসমিয়, নেপালি ভাষা বলে। … বিস্তারিত

নাগাল্যান্ড

নাগাল্যান্ড

আসাম, মেঘালয়, ত্রিপুরা, মনিপুর, মিজোরাম, নাগাল্যান্ড, অরুণাচল-কে ‘সেভেন সিস্টারস’ বলা হয়। তন্মধ্যে নাগাল্যান্ড অন্যতম। এর প্রতিটি পরতে পরতে ছড়িয়ে আছে সবুজের গালিচা। দূর থেকে হাতছানি দেয় বিস্ময়, অ্যাডভেঞ্চার আর উপজাতীয় সংস্কৃতি। দুর্গম পাহাড়ি পথ আর প্রাকৃতিক সৌন্দর্যও অনাবিল। শান্তি ও নির্মলতার প্রতীক নাগাল্যান্ড। হিমালয়ের পাদদেশে উপজাতীয় সংস্কৃতি আর ঐতিহ্যে লালিত ভারতের একটি সুন্দর … বিস্তারিত

পালমাজুয়া

পালমাজুয়া

পালমাজুয়া এর পাহাড় যেন আরও সুন্দর, আরও সবুজ। কুয়াশা আর মেঘ তো পাহাড়ে দেখাই যায়। তবে এই পাহাড়ে মেঘ আসে, টুক করে ঢুকে পড়ে এর ওর বাড়িতে, বারান্দায়। নির্জন এই পাহাড়িয়া গ্রামে হাঁটলেই কুয়াশার চাদর যেন আষ্টেপৃষ্ঠে গায়ে জড়িয়ে ধরে। রোদ উঠলেই যেন রূপের বদল ঘটে চোখের পলকে। ঘন নীল আকাশের নীচে পাইন, … বিস্তারিত

নাথাং ভ্যালী

নাথাং ভ্যালী

পূর্ব সিকিমের ছোট্ট একটা গ্রাম নাথাং যা ১৩৫০০ ফিট উচুতে অবস্থিত৷ সর্ব সাকুল্যে ৫০-৬০টি ঘরবাড়ি নিয়ে এর ব্যাপ্তি৷ বাড়িগুলোর টিনের চালে ঝুরো ঝুরো বরফকুচি৷ জলপাইগুড়ি থেকে পূর্ব সিকিমের নাথাং মোট ১৭৫ কিমি। জুলুক থেকে লুংফুং হয়ে লক্ষীচকে কুলুপ যাবার রাস্তার বাঁদিকে গেলেই নাথাং ভ্যালি। একটা কথা … বিস্তারিত

সাংসের, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত

সাংসের

সাংসের কালিম্পং এর ৩৯টি গ্রামের মধ্যে একটি এবং অত্যন্ত সুন্দর একটি গ্রাম যা ডেলো পাহাড় দ্বারা বেষ্টিত। সাংসেরে দ্রষ্টব্য স্থান খুব একটা নেই। থাকার মধ্যে আছে ‘জলসা’ বাংলো নামক একটি ব্রিটিশ বাংলো। কাছেপিঠে অন্যান্য গ্রামের মধ্যে আছে ইচ্ছেগাঁও, রামধুরা ইত্যাদি। দিনের আলোয় … বিস্তারিত

লাভা

লাভা

কুয়াশা ও মেঘে ঢাকা পাইন গাছে ঘেরা এই ছোট্ট গ্রামটি কালিম্পং থেকে ৩৪ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এবং সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৭০১৬ ফিট উচ্চতায় অবস্থিত। ভূটানের সঙ্গে বাণিজ্যের পুরনো পথের মধ্যে অবস্থিত গ্রামটি রয়েছে ২৩৫০ মিটার উচ্চতায়। এখানে একটি বৌদ্ধ মন্দির ও প্রকৃতি পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র রয়েছে। প্রকৃতি উপভোগ ও পাখি দেখার জন্য বিখ্যাত লাভা, নেওরাভ্যালি ন্যাশনাল পার্কে … বিস্তারিত

লোলেগাঁও

লোলেগাঁও

লোলেগাঁও আসলে একটি ছোট ল্যাপচা গ্রাম যার জনসংখ্যা ৫০০০ এর কাছাকাছি। লোলেগাঁও, কালিম্পং থেকে মাত্র ৫৫ কিলো, শিলিগুড়ি থেকে ১২৪ কিলো এবং লাভা থেকে ২৪ কিলো দূরত্বে অবস্থিত। যারা প্রকৃতির সান্নিধ্যে থাকতে পছন্দ করেন তাদের জন্যে মেঘে ঢাকা পাইন বনে ঘেরা … বিস্তারিত

ভ্যালি অফ ফ্লাওয়ার্স

ভ্যালি অফ ফ্লাওয়ার্স

বর্ষাকালে ভারতের উত্তরাঞ্চলের উত্তরাখন্ডে ভ্যালি অফ ফ্লাওয়ার্স বা নন্দনকাননে বসে ফুলের জলসা। যোশিমঠ থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে ঘানঘারিয়া থেকে এই ‘ভ্যালি অফ ফ্লাওয়ার্স’ – এর এলাকা শুরু। প্রায় ৮৭ স্কোয়ার কিলোমিটার জুড়ে বিস্তৃত এর এলাকা। স্থানীয় মানুষদের ভাষায় যাকে বলা হয় ‘ফুলোঁ কি ঘাটী’, সেই ভ্যালি অব ফ্লাওয়ার্স-এ ৫২১ রকম প্রজাতির লতা, গুল্ম ও … বিস্তারিত

শিলং

শিলং

“প্রাচ্যের স্কটল্যান্ড” হিসাবে প্রশংসিত মেঘালয় (Meghalaya) রাজ্যের রাজধানী শিলং ৪৯০৮ ফুট উচ্চতায় অবস্থিত। শিলং শহরের বাইরে ও অভ্যন্তরে প্রচুর দর্শনীয় আকর্ষণ রয়েছে, যা প্রতিটি পর্যটকদের পছন্দের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে। নানা সরকারি ও বেসরকারি ব্যাঙ্কের শাখা আছে শিলংয়ে। শিলং (Shillong) ক্লাবের কাছে কাছারি রোড-এর ভারতীয় স্টেট ব্যাঙ্কে পাওয়া যাবে বিদেশি মুদ্রা সংক্রান্ত তথ্য। অনেক দোকান ও হোটেলেই … বিস্তারিত