সন্দ্বীপ

Ratings
রেটিংস 0 (0 রিভিউ)

সন্দ্বীপ বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্ব উপকূলে বঙ্গোপসাগরে অবস্থিত চট্টগ্রাম জেলার অন্তর্গত একটি দ্বীপ। এটি মেঘনা নদীর মোহনায় অবস্থিত। এটি বাংলাদেশের অত্যন্ত প্রাচীন একটি দ্বীপ। এখানে প্রায় ৪০০,০০০ জনসংখ্যা রয়েছে। সমগ্র দ্বীপ ৫০ কিলোমিটার দীর্ঘ এবং ৫-১৫ কিলোমিটার প্রশস্ত।

দ্বীপের প্রত্যেকটি জায়গা দেখার মতন। ফসল ভরা মাঠ সবুজ প্রকৃতি, হাট, বাজার সব কিছু। দ্বীপের উত্তর থেকে দক্ষিনের সব প্রান্ত ঘুরে দেখতে পারেন অনায়াসে। দ্বীপের উত্তরে তাজমহলের আদলে নির্মিত শত বছরের পুরনো মরিয়ম বিবি সাহেবানী মসজিদ। মসজিদ সংলগ্ন বড় দিঘী, মাজার। দ্বীপের দক্ষিনের ঐতিহ্যবাহী শুকনা দিঘী। এছাড়া রয়েছে অসংখ্য মসজিদ, স্কুল, মাদ্রাসা, বড় বড় খেলার মাঠ। ভাগ্য ভালো থাকলে দেখেতে পারবেন পুরনো বাউল জারী সারি গানের আসর।

সন্দ্বীপ ভ্রমণ করার জন্যে শীতকাল সময়টাই সবচেয়ে উপযুক্ত। সবমিলিয়ে হাজার তিনেকের মধ্যে আপনার হয়ে যাওয়ার কথা।

খাওয়া-দাওয়াঃ

স্থানীয় খাবার হোটেলে সাধারন সকল খাবার পাবেন, মান স্বাভাবিক মানের হবে, আহমরি ভালো কিছু আশা করবেন না। খরচ প্রতিবেলা অনূর্ধ্ব একশত টাকা জনপ্রতি।

কিভাবে যাবেনঃ

ঢাকা থেকে স্টীমারে যেতে চাইলে প্রথমেই আপনাকে যেতে হবে সদরঘাট। সপ্তাহে তিন দিন এই সার্ভিস থাকে সকাল ৯ টায় সদরঘাট ছেড়ে যায় সন্দ্বীপের উদ্দেশ্যে।

অথবা দেশের যে কোন প্রান্ত হতে চট্টগ্রামগামী বাসে করে চলে যান সীতাকুণ্ডের কুমিরা স্টিমার ঘাট। ভাড়া বিভিন্ন জায়গা হতে বিভিন্ন। ঢাকা হতে নন-এসি চেয়ার কোচের ভাড়া ৫০০ টাকার মধ্যে, সুপারভাইজারকে বলে রাখবেন, কুমিরা স্টিমার ঘাটে নামিয়ে দিতে। বাস আপনাকে যেখানে নামাবে সেখান থেকে জনপ্রতি ১০-২০ টাকা ভাড়ায় ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা করে চলে যাবেন স্টিমার ঘাটে। এই ঘাটের নাম কুমিরা-গুপ্তছরা ঘাট। এই প্রান্তে কুমিরা, সন্দ্বীপের প্রান্তে গুপ্তছরা। কুমিরা থেকে সন্দ্বীপ যাওয়ার ভাড়া জনপ্রতি স্পীডবোটে ৩০০-৩৫০ টাকা, ট্রলারে ১৫০ টাকা আর সী-ট্রাকে ১২০ টাকা। ট্রলার জোয়ার আসলে পড়ে ছাড়ে, আর সী-ট্রাক বেলা বারোটার দিকে। তাই সবচেয়ে ভালো অপশন স্পীডবোট। তাই সেখানে পৌঁছেই কাউণ্টারে গিয়ে নাম লিখিয়ে সিরিয়াল নিয়ে নিবেন। সন্দ্বীপ (Sandwip) পৌঁছে গুপ্তছরা ঘাট থেকে এনাম নাহার (মূল শহর) পর্যন্ত সিএনজি অটোরিকশা ভাড়া ১৫০-২০০ টাকা, সরাসরি পশ্চিমপাড় ঘাট চলে গেলে ভাড়া ২৫০-৩০০ টাকার মধ্যে থাকবে।

কোথায় থাকবেনঃ

সন্দ্বীপ টাউন কমপ্লেক্স এ পৌঁছে সোজা সরাসরি চলে যান দ্বীপের পশ্চিমে একেবারেই নদীর কিনার ঘেঁষে। এক্ষেত্রে স্থানীয়দের সাহায্য নিতে পারেন। উপযুক্ত জায়গা নির্বাচন করে তাবু করে নিন। রাতের মিটিমিটি আলো, খোলা আকাশের নিচে নদীর কলকল ধ্বনি ঘন কুয়াশায় কয়েকটি রাত পার করে দিতে পারবেন একেবারেই অনায়াসে। এ ছাড়া কবির কফি হাউজ তো আছেই। যে কাউকে জিজ্ঞেস করলেই কবির কফি হাউজের দেখা মিলবে।

এছাড়া এনাম নাহারে দু’য়েকটি হোটেল আছে, খুঁজে পেতে একটু বেগ পেতে হতে পারে। এছাড়া উপজেলা পরিষদের ডাকবাংলো’তে থাকা যেতে পারে, এজন্য যোগাযোগ করতে হবে উপজেলা পরিষদে। অদ্যাবধি যে কন্টাক্ট নাম্বার দেয়া আছে উপজেলা পরিষদের সরকারী ওয়েবসাইটে তা দেয়া হল আপনাদের জন্যঃ ০১৮১১-৩৪১৭২২ (মাহমুদুর রহমান, কেয়ারটেকার)। এছাড়া ব্যক্তিগতভাবে স্থানীয়দের সহায়তা নিতে পারেন, তবে নিরাপত্তার ব্যাপারে সাবধান থেকে অবশ্যই।

আপনার রিভিউ দিন

* বাধ্যতামূলক ভাবে পূরণ করতে হবে।

Sending