ধামোর চা বাগান

একদিনে চা বাগান ও টংকনাথ রাজবাড়ি ভ্রমণ

★ স্থান ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশৈংকল উপজেলা ও পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলা।হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থিত এই দুইজেলা।আসলে ভ্রমণ স্থান বলতে আমারা শুধু সিলেট চট্রগাম, খুলনার স্থানগুলো বেছে নেই।দেশের আনাচে কানাচে যে কত নান্দনিক স্থান রয়েছে তা কল্পনাতীত। ★ টংকনাথের রাজবাড়ি ঠাকুরগাঁ জেলের রাণীশৈংকল উপজেলায় অবস্থিত বহুল আলোচিত রাজা টংকনাথের বাড়ি।ভাঙ্গা এই রাজবাড়িটি অনেক সুন্দর … বিস্তারিত

যুক্ত করা হয়েছে

হিমালয় দেখার দিনে – পঞ্চগড় থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা

ঘুমটা ভেঙ্গে গেল ঠাণ্ডায়, মুঠো ফোনের বিকট এলার্মটাও বেজে চলেছে সমান তালে। ঘুমের সাথে যুদ্ধ জয় করে চোখ মেলে দেখি চারটা বাজতে কয়েকমিনিট, বিছানা ছেড়ে দেখি সঙ্গীরাও উঠে পড়েছে। সঙ্গী বলতে ছোট ভাই মিজান ও তূর্য্য আর বগুড়ার ভবঘুরে কয়েকজন বড়ভাই। তাদের আর ডাকলাম না … বিস্তারিত

Tetulia Tea Garden, Panchagarh (তেতুলিয়া চা বাগান, পঞ্চগড়)

তেতুলিয়া চা বাগান

চা বাগানের কথা উঠলেই মনে হয় সিলেট বা শ্রীমঙ্গলের কথা। উচু নিচু সবুজে ঘেরা টিলা আর পাহাড় তার গাঁয়ে সারি সারি চা গাছ। কিন্তু সমতল ভূমিতেও যে চা বাগান হতে পারে তা পঞ্চগড় না এলে বোঝা যাবে না। দেশের সর্ব উত্তরের … বিস্তারিত

Mirzapur Shahi Jamei Mosque (মির্জাপুর শাহী মসজিদ)

মির্জাপুর শাহী মসজিদ

আটোয়ারী উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের মির্জাপুর গ্রামে মির্জাপুর শাহী মসজিদটি অবস্থিত। ধারণা করা হয় ১৬৭৯ খ্রিষ্টাব্দে নির্মিত ঢাকা হাইকোর্ট প্রাঙ্গণে অবস্থিত মসজিদের সাথে মির্জাপুর শাহী মসজিদের নির্মাণ শৈলীর সাদৃশ্য রয়েছে। এর ফলশ্রুতিতে অনেকেই মনে করেন যে ঢাকা হাইকোর্ট প্রাঙ্গনে অবস্থিত মসজিদের সমসাময়িক কালে এ মির্জাপুর শাহী মসজিদের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়। কোন এক তথ্যসূত্রে … বিস্তারিত

পঞ্চগড় থেকেই কাঞ্চনজঙ্ঘা

পঞ্চগড় থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা

পঞ্চগড় হলো বাংলাদেশের সর্বউত্তরের জেলা যেখান থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখা যায়, যার তিন দিকেই ভারতের প্রায় ২৮৮ কিলোমিটার সীমানা-প্রাচীর দিয়ে ঘেরা। এর উত্তর দিকেই ভারতের দার্জিলিং জেলা। পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলা সদরে একটি ঐতিহাসিক ডাকবাংলো আছে। এর নির্মাণ কৌশল অনেকটা ভিক্টোরিয়ান ধাঁচের। জানা যায়, কুচবিহারের রাজা এটি নির্মাণ করেছিলেন। ডাকবাংলোটি জেলা পরিষদ … বিস্তারিত