হরিনঘাটা পর্যটন কেন্দ্র

ভালো লেগেছে
2

বরগুনা জেলার পাথরঘাটা উপজেলার দক্ষিণে হরিনঘাটা পর্যটন কেন্দ্র যা সুন্দরবনের অংশ। হরিন, বানর,পাখির,আর সবুজ পাতার সানাইয়ে সারাক্ষণ মুখর থাকে হরিনঘাটা বনাঞ্চল। এ বনে কোন বাঘ নেই। বঙ্গোপসাগরের মোহনায়,পায়রা, বিষখালি, বলেশ্বর – এই তিন নদীর সঙ্গমস্থলে অবস্থিত এই বনাঞ্চল। নতুন ভাবে যোগ হয়েছে নদীর ধারের ঝাউবন। কাছাকাছি আছে ফাতরার চর ও পদ্দার পার। চাইলে ট্রলার ভারা করে ঘুরতে ঘুরতে কুয়াকাটাও যেতে পারেন।

যাওয়ার উপায়

ঢাকা গাবতলি থেকে সরাসরি পাথরঘাটার বাস আছে, ভাড়া পড়বে ৬৫০ টাকা। এছাড়া লঞ্চে আরাম দায়ক ভ্রমন করতে চাইলে বরগুনা / বরিশালের লঞ্চে উঠতে হবে। বরিশাল থেকে পাথরঘাটার বাস প্রতি ঘন্টায় ছেড়ে যায়, ভাড়া ১৮০ টাকা। বরগুনার লঞ্চে উঠলে কাকচিরা ঘাটে নেমে মটর সাইকেল ভাড়া করে পাথরঘাটা। পাথরঘাটা থেকে মটর সাইকেল যোগে হরিনঘাটা (Haringhata) যেতে ৩০ মিনিট সময় লাগবে মাত্র।

কোথায় থাকবেন

থাকার জন্যে আপনাকে বরগুনা সদরে ফিরতে হবে। বরগুনায় থাকার জন্য বেশকিছু আবাসিক হোটেল ও রেস্ট হাউজ রয়েছে। আপনার সুবিধার্থে কিছু হোটেল ও রেস্ট হাউজের তথ্য নিম্নে দেওয়া হলঃ

  • জেলা পরিষদ রেস্ট হাউজ (ফোনঃ ০৪৪৮-৬৪১০)
  • খামারবাড়ি রেস্ট হাউজ (ফোনঃ ০৪৪৮-৬৪৪৯)
  • পানি উন্নয়ন বোর্ড রেস্ট হাউজ (ফোনঃ ০৪৪৮-৬৫৫১)
  • এভাগ্র সার্ভিস সেন্টার (ফোনঃ ০৪৪৮-৬৭০৮)
  • গণপূর্ত অধিদফতর (ফোনঃ ০৪৪৮-৬৫০৫)
  • ইলাজি ডি রেস্ট হাউজ (ফোনঃ ০৪৪৮-৬০৫৪)
  • সিয়ারাপি রেস্ট হাউজ (ফোনঃ ০৪৪৮-৬০৫১)
  • হোটেল আলম, ফোনঃ ০৪৪৮-৬২২৩৪
  • বরগুনা রেস্ট হাউজ, ফোনঃ ০১৭১৮৫৮৮৮৫৬
  • হোটেল তাজবিন, ফোনঃ ০৪৪৮-৬২৫০৩
×

করোনা (COVID-19) ভাইরাস থেকে সতর্ক থাকতে যা করনীয়ঃ

  • সবসময় হাত পরিষ্কার রাখুন। সাবান দিয়ে অন্তত পক্ষে ২০ সেকেন্ড যাবত হাত ধুতে হবে।
  • সাবান না থাকলে হেক্সিসল ব্যবহার করুন। হেক্সিসল না থাকলে হ্যান্ড সেনিটাইজার ব্যবহার করুন।
  • আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে দূরে থাকুন, যতটুকু সম্ভব ভীড় এড়িয়ে চলুন।
  • বাজারে কিছু স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন, করলে হাত সাবান দিয়ে ধুয়ে নিন।
  • টাকা গোনা ও লেনদেনের পর হাত সাবান দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।
  • ওভার ব্রিজ ও সিড়ির রেলিং ধরে ওঠা থেকে বিরত থাকুন।
  • পাবলিক প্লেসে দরজার হাতল, পানির কল স্পর্শ করতে টিস্যু ব্যবহার করুন।
  • হাত মেলানো, কোলাকুলি থেকে বিরত থাকুন।
  • নাক, মুখ ও চোখ চুলকানো থেকে বিরত থাকুন।
  • হাঁচি কাশির সময় কনুই ব্যবহার করুন।
  • আপনি যদি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত না হয়ে থাকেন তবে মাস্ক ব্যবহার আবশ্যক নয় তবে আক্রান্ত হলে সংক্রমণ না ছড়াতে নিজে মাস্ক ব্যবহার করুন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক থাকুন। Stay Home, Stay Safe.

দিক নির্দেশনা

আপনার রিভিউ দিন

* বাধ্যতামূলক ভাবে পূরণ করতে হবে।

  1. রাস্তাটা দারুন, মনে হয় বনের মধ্যে হারিয়ে যাচ্ছি।