খোনোমা, নাগাল্যান্ড

খোনোমা, নাগাল্যান্ড

সমুদ্র থেকে প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার ফিট উপরে অবস্থিত খোনোমা নাগাল্যান্ডের রাজধানী কোহিমা থেকে মোটামুটি ২০ কিলোমিটার দূরে। এখানকার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে মুগ্ধ না-হয়ে উপায় নেই। এই গ্রামকে এশিয়ার প্রথম সবুজ গ্রাম (The First Green Village in Asia) হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। ৭০০ বছরের এই গ্রামে আঙ্গামি উপজাতির বাস। আঙ্গামির পুরুষরা … বিস্তারিত

শ্রীখোলা, রিম্বিক, দার্জিলিং

শ্রীখোলা

শ্রীখোলা (Srikhola) – দার্জিলিং এর একটি ছোট্ট গ্রাম যেখানে সচরাচর পর্যটকরা যান না৷ তবে যারা সান্দাকফু – ফালুট ট্রেকিং করতে যারা যান তারা শ্রীখোলার সৌন্দর্যে ক্ষণিকের জন্য হলেও থমকে যান৷ এখানে অতিথিদের স্বাগত জানায় শান্ত সুন্দর শ্রীখোলা নদী যার উপরে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে দু’শো বছরের … বিস্তারিত

খেচিপেরি লেক

খেচিপেরি লেক

সিকিমের পেলিং গেলে দর্শনীয় স্থানগুলোর মধ্যে অন্যতম জায়গা খেচিওপালরি বা খেচিপেরি লেক। লেকটি পেলিং শহর থেকে প্রায় ৩৪ কিলোমিটার দূরে খেচিপেরি গ্রামে অবস্থিত। লেকটি বৌদ্ধ ও হিন্দুদের কাছে অত্যন্ত পবিত্র একটি লেক। চারপাশে পাহাড় ঘেরা জংগল, সেখানে থেকে শুকনো পাতা লেকের জলে … বিস্তারিত

চেইল, হিমাচল প্রদেশ, ভারত

চেইল

হিমাচলের নিরালা নির্জনে ছোট্ট পার্বত্য শহর চেইল (Chail) যা সোলান জেলার অন্তর্গত। সিমলা থেকে কুফরীর পথে ৪৫ কিলোমিটার দূরে এই শহরটি যাকে বলা হয় ‘লিটল মাউন্টেন অফ হেভেন’। এই শৈল শহরটি গড়ে ওঠার পিছনে একটি প্রেমের গল্প আছে। উনবিংশ শতাব্দীতে দ্বিতীয়ার্ধে ভারতের দায়িত্ব প্রাপ্ত ইংরেজ কমান্ডার ইন চিফ কিচেনের সুন্দরী কন্যাের প্রেমে পড়েন … বিস্তারিত

ঝান্ডি

ঝান্ডি

কুয়াশা মেঘের খেলা দেখে মন খারাপ না করে মন ভালো করার নাম ঝান্ডি। এ যেন মেঘের বাড়ি। পাহাড় ও উপত্যকাজুড়ে অরণ্যের সৌন্দর্য। চারপাশে সবুজের কতরকম শেড। পাখির মেলা বসে চেনা অচেনাবহু পাখি। একঘেয়ে জীবন থেকে একটু নির্জনে কাটানোর সেরা ঠিকানা। নিউ মাল জংশন থেকে মালবাজার হয়ে গরুবাথান পেরিয়ে চেল … বিস্তারিত

লেপচাখা, ডুয়ার্স, ভারত

লেপচাখা

ভুটানের কাছে ছোট্ট গ্রাম লেপচাখা (Lepchakha) যা আলিপুরদুয়ার জেলার বক্সা-জয়ন্তি ন্যাশনাল পার্ক এর একটি অংশ। এই জায়গাটিকে Heaven of Dooars বলা হয়। প্রায় সাড়ে তিন হাজার ফুট উচ্চতায় অবস্থিত পাহাড়ি এই গ্রামটি। কখনও রোদ ঝলমলে দুপুরের আকাশে হঠাতই উড়ে আসা মেঘের … বিস্তারিত

তিনচুলে, দার্জিলিং, ভারত

তিনচুলে

দার্জিলিংয়ের প্রত্যন্ত প্রান্তে ঘুমিয়ে থাকা ছোট্ট একটি গ্রামের নাম তিনচুলে অনেকে ভালোবেসে বলে থাকেন – A small hamlet in the Himalayas. কার্শিয়াংয়ের তাকদায় ওল্ড ক্যান্টনমেন্ট এরিয়ায় তিনচুলে গ্রাম। শিলিগুড়ি থেকে দূরত্ব ৮০ কিলোমিটার। তিনচুলে নামের মানে হলো – তিনটে চুল্লি বা চুলা! নিজেদের গ্রামকে এখানকার বাসিন্দারা … বিস্তারিত

মণিকরণ

মানালি থেকে কুলু পার হয়ে বিয়াসকে সঙ্গী করে চলে যেতে পারেন হিন্দু ও শিখদের এক ধর্মক্ষেত্রে মণিকরণ (Manikaran) এ। এখানের পার্বতী নদীর উষ্ণ প্রস্রবণে অবগাহন করে পবিত্র হন ভক্তকুল। কুলু থেকে কাসল হয়ে মণিকরণ যাওয়া যায়। এ পথের যে দিকে তাকানো যায় সেদিকেই কেবল ছবি। বিপাশা এখানে বিয়াস নাম নিয়েছে। … বিস্তারিত

কাসল, কুল্লু, হিমাচল প্রদেশ, ভারত

কাসল

কাসল, হিমাচল প্রদেশের কুল্লু জেলার একটি গ্রাম। পার্বতি নদীর তীরে অবস্তিত কাসল। এই অসাধারণ গ্রাম তার সরলবর্গীয় বন ও পাহাড়ের জন্য জনপ্রিয় বেশ জনপ্রিয়। কাসল (Kasol) প্রকৃতিপ্রেমি এবং পাহাড় আরোহী সকলের কাছেই একটি আনন্দদায়ক জায়গা। কাসল থেকে একটা গাড়ি ভাড়া করে ঘুরে আসতে পারেন তশ গ্রাম, আসা-যাওয়া … বিস্তারিত

লামাহাট্টা, দার্জিলিং, ভারত

লামাহাট্টা

প্রতিদিনের ব্যস্ত জীবনের কোলাহল থেকে মুক্তি পেতে ঘুরে আসতে পারেন দার্জিলিং এর চাকচিক্য থেকে অনেক দূরে শেরপাদের গ্রাম লামাহাট্টায় (স্থানীয় উচ্চারণ-এ লামাট্টা)। ৫৭০০ ফুট উচ্চতায় অবস্থিত এই গ্রামে তামাং, ভুটিয়া, ডুকপা ইত্যাদি পার্বত্য উপজাতির বাস। তিব্বতী লামাদের ভারত সরকার এইখানে বসবাসের ব্যবস্থা করায়, সেই থেকে জায়গার নাম লামাহাট্টা— এ যেন রূপ-বৈচিত্রের সম্ভার। পাইনের জঙ্গল, পাহাড়, … বিস্তারিত

তাকদা, দার্জিলিং, ভারত

তাকদা

তাকদা দার্জিলিং এর মূল শহর থেকে কমবেশি ৩০ কিমি দূরে। এখান থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখা যায় না, কিন্তু দেখা যায় দিগন্ত বিস্তৃত ঘন সবুজের সমারোহ আর বিখ্যাত সমস্ত কোম্পানীর চা বাগান। উত্তরবঙ্গের গ্রামীণ পর্যটনের সেরা জায়গাগুলোর মধ্যে অন্যতম। অপূর্ব নৈসর্গিক শোভা তাকদার অন্যতম আকর্ষন। এইখানে … বিস্তারিত

সামসিং, ডুয়ার্স, ভারত

সামসিং

ডুয়ার্স এর সামসিং আদতে ছোট একটি পাহাড়ি জায়গা যা প্রকৃতি প্রেমিকদের ভাল লেগে যাবেই এটা নিশ্চিত ভাবে বলা যায়! শিলিগুড়ি থেকে ৮২ কিলো দূরের সামসিং (Samsing) সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে আনুমানিক ৩০০০ ফিট উচুতে অবস্থিত। সামসিং এমনিতে ভারী শান্ত। শহরের গোলমাল, ধুলো-ধোঁয়া থেকে দূরে, নিশ্চিন্তে প্রকৃতির সৌন্দর্য উপভোগ করার জন্য আদর্শ। পাহাড়ি জায়গা। ফলে ছোটখাটো ট্রেক … বিস্তারিত