সুনতালেখোলা, ডুয়ার্স

সুনতালেখোলা

কিছুটা নির্জনতা, প্রকৃতির সঙ্গে কথা বলা, কর্মব্যস্ততার জীবনকে দূরে সরিয়ে নিজের মতো কাটাতে জঙ্গল, নদী পাহাড়ের সমন্বয় ডুয়ার্সের সুনতালেখোলা৷ ডুয়ার্সের মানচিত্রে প্রকৃতির পাঠশালা, যদিও জায়গাটি দার্জিলিং জেলার অন্তর্গত৷ ছোট্ট পাহাড়ি গ্রাম সুনতালেখোলা, নেপালি ভাষায় সুন্তালের অর্থ কমলালেবু এবং খোলার অর্থ ছোটো নদী৷ বর্ষায় সবুজের সমাহার, রং-বেরঙ-এর প্রজাতি, পাখির কলতান সেই সঙ্গে মায়াবী শান্ত পরিবেশ … বিস্তারিত

কোলাখাম, উত্তরবঙ্গ, ভারত

কোলাখাম

লাভা থেকে আট কিলোমিটার দূরে এক অবাক পৃথিবী কোলাখাম। মাত্র ৬০টি ঘর নেপালি ‘রাই’ সম্প্রদায়ের মানুষের বসতি গড়ে উঠেছে এখানে। তারই ফাঁকে ফাঁকে কয়েকটি রিসর্ট নেওড়া ভ্যালি ফরেস্টের ঠিক গা ঘেঁষে। বনের ভেতরে ঢোকার ব্যাপারে বন বিভাগের বারণ আছে। তবু অল্পবিস্তর হাঁটাহাঁটি চলতে পারে। কাছেই আছে ছাঙ্গে ফলস এবং চেল নদী। অপার নীল আকাশে … বিস্তারিত

জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যান

জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যান যা আগে ছিল জলদাপাড়া বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য, পশ্চিমবঙ্গের আলিপুরদুয়ার জেলায় পূর্ব হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থিত একটি জাতীয় উদ্যান। তোর্সা নদীর তীরে অবস্থিত এই অভয়ারণ্যের সামগ্রিক আয়তন ১৪১ বর্গ কিলোমিটার। এই অভয়ারণ্য যদিও ১৯৪০-৪১ সাল থেকেই প্রাণী সংরক্ষণ কেন্দ্র হিসাবে ঘোষিত, তবু অভয়ারণ্যের স্বীকৃতি জোটে ১৯৭৬ সালে। ১০ … বিস্তারিত

হায়দ্রাবাদ

হায়দ্রাবাদ

মুসি নদীর তিরে তেলেঙ্গানার রাজধানী হায়দ্রাবাদ। ১৫৯১ খ্রিষ্টাব্দে গোলকন্ডার পঞ্চম নৃপতি কুতুব শাহ এই শহরটি পত্তন করেন। এর অতীতে নাম ছিল ভাগ্যনগরী। হায়দ্রাবাদের যমজ শহর সেকেন্দ্রাবাদ। হুসেন সাগর এই দুই শহরকে বিচ্ছিন্ন করেছে। ন্যাশনাল জিওগ্রাফিকের (National Geographic) ভ্রমণ সাময়িকী ‘ট্রাভেলার’-এর বিবেচনায় ২০১৫ সালে বিশ্ব ভ্রমণে বের হলে দেখার মতো দ্বিতীয় সেরা স্থান হবে ভারতের হায়দ্রাবাদ … বিস্তারিত

কার্শিয়াং

কার্শিয়াং

কার্শিয়াং দার্জিলিং জেলার একটি শৈল শহর এবং মহকুমা। এটি ১৪৫৮ মিটার উঁচুতে অবস্থিত। কার্শিয়াং দার্জিলিং থেকে মাত্র ৩০ কিলোমিটার দূরে। এখানকার আবহাওয়া সারা বছরই আরামদায়ক, শীতকালের ঠান্ডা দার্জিলিং এর মতো তীব্র নয়। কার্শিয়াং এর স্থানীয় নাম খার্সাং, লেপচা ভাষায় এই কথার অর্থ ‘সাদা অর্কিডের দেশ’। … বিস্তারিত

ছোটা মাঙ্গওয়া

ছোটা মাঙ্গওয়া

তিনচুলে থেকে একঘন্টার পথ ছোটা মাঙ্গওয়া যা শিলিগুড়ি থেকে ৬০ কিলোমিটার দূরে এবং তিস্তা ন্যাশনাল হাইওয়ে থেকে ১৫ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত। বোল্ডার বিছানো খাড়াই পথ। এটি একটি অরগ্যানিক গ্রাম। এর আবার এক দিদি আছে, বড়া মাঙ্গওয়া। ছোটা মাঙ্গওয়ায় ‘দার্জিলিং ব্লসাম ইকোট্যুরিসম কমপ্লেক্স’ই রয়েছে একমাত্র এবং এর অবস্থান, পরিবেশ, প্রকৃতি অসামান্য। সাধারণত পাহাড়ি অঞ্চলে … বিস্তারিত

বড়া মাঙ্গওয়া

বড়া মাঙ্গওয়া

বড়া মাঙ্গওয়া এর পাহাড়ি ঢালে কমলালেবুর বাগান আর অজস্র অর্কিড। রং বেরঙের ফুলে ঢাকা এই উপত্যকায় বসন্ত উপভোগ করতে মন্দ লাগবে না। বড়া মাঙ্গওয়া ফার্ম হাউসের বারান্দা থেকে পাহাড়ের ভিউ ভোলার নয়। কালিম্পংয়ের পশ্চিমের ছোট্ট এই গ্রাম এখনও ভ্রমণপিপাসুরা সেভাবে Explore করেন নি। … বিস্তারিত

দীঘা সমুদ্র সৈকত

দীঘা সমুদ্র সৈকত

দীঘা পশ্চিমবঙ্গের একমাত্র সমুদ্র কেন্দ্রীক ভ্রমণ কেন্দ্র। কলকাতা থেকে মাত্র ১৮৭ কিলোমিটার দূরে মেদিনিপুর জেলায় সমুদ্র, বালিয়াড়ি, ঝাউ বন আর আপার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য মিলিয়ে অপেক্ষা করছে প্রকৃতি প্রেমিক পর্যটকদের জন্য। ৭ কিলোমিটার লম্বা সমুদ্রতট এক পাশে গভীর সমুদ্র অন্যপাশে ঝাউ গছের অগভীর জঙ্গল। ভেঙ্গে পড়া ঢেউ-এর জলে পা ভিজিয়ে হেঁটে যাওয়া … বিস্তারিত

তুরতুক, নুব্রা ভ্যালী, লেহ

তুরতুক

তুরতুক বিধাতার বিশেষ আশীর্বাদপ্রাপ্ত ভারতের সীমানার শেষ গ্রাম যা সমুদ্র সীমা থেকে ৯৮৪৬ ফিট (৩০০১ মিটার) উচুতে অবস্থিত। অদ্ভুত সুন্দর তুরতুক গ্রামটি সায়ক ভ্যালীতে অবস্থিত যা নুব্রা ভ্যালী এর অংশ বিশেষ। লেহ শহর থেকে এই গ্রামের দূরত্ব ২০৫ কিলোমিটার এবং … বিস্তারিত

মিজোরাম

মিজোরাম

ভারতের পূর্ব-দক্ষিণের রাজ্য মিজোরাম। মিজোরাম অর্থ পাহাড়ী মানুষের রাজ্য। মি = মানুষ, জো = পাহাড়, রাম = রাজ্য। রাজধানীর নাম আইজল। মিজোদের জাতীয় নেতা লালডেঙ্গার দেশ এটি। একারণে লালডেঙ্গার আবক্ষ মূর্তি স্থাপন করা হয়েছে আইজলের মাঝখানে। মিজোরামের আয়তন বাংলাদেশের তুলনায় এক তৃতীয়াংশ। পুরোটাই পাহাড় ঘেরা। স্রষ্টা যেন … বিস্তারিত

আথিরাপল্লি জলপ্রপাত

আথিরাপল্লি জলপ্রপাত

ভারতের নায়াগ্রা নামে পরিচিত আথিরাপল্লি জলপ্রপাত। চারিদিকে সুবজের মধ্যে ৩৩০ ফুট উচ্চতা থেকে জলরাশি নেমে আসছে মাটিতে। মনমুগ্ধকর এই দৃশ্য আপনি দেখতে পাবেন কেরালা গেলেই। এখানকার থিসার জেলায় জলপ্রপাতটি অবস্থিত। কেরালা এর সবচেয়ে বড় জলপ্রপাত আথিরাপল্লি জলপ্রপাত যা তার অসাধারণ সৌন্দর্যের জন্য বিখ্যাত। এটিকে ভারতের নায়াগ্রাও বলা হয়ে থাকে। আথিরাপল্লি … বিস্তারিত

মুন্নার, কেরালা

মুন্নার

কেরালা কে বলা হয় গডস ওউন কান্ট্রি। কেরালাকে একটি পছন্দের গন্তব্যস্থল হিসেবে বেছে নেওয়ার পিছনে মুন্নার এর বিশেষ অবদান রয়েছে। এখানকার মুন্নার এর চা বাগানে ঘেরা পরিবেশে কয়েকদিন কাটালেই মন ভালো হয়ে যাবে সন্দেহ নেই। মুথিরাপুঝা, নাল্লাথান্নি এবং কুন্দলা এই তিন নদীর সঙ্গমস্থলে অবস্থিত এবং সমুদ্র … বিস্তারিত